kalerkantho

শনিবার । ২৭ চৈত্র ১৪২৭। ১০ এপ্রিল ২০২১। ২৬ শাবান ১৪৪২

এসএসসির সংক্ষিপ্ত সিলেবাস প্রকাশ

এ বছর আর অটোপাস নয় : শিক্ষামন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২৬ জানুয়ারি, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



এসএসসির সংক্ষিপ্ত সিলেবাস প্রকাশ

করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবে প্রায় ১১ মাস শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ রয়েছে। ফলে চলতি বছরের এসএসসি পরীক্ষার্থীদের জন্য পুনর্বিন্যস্ত সিলেবাস প্রকাশ করা হয়েছে। গতকাল সোমবার এই সংক্ষিপ্ত সিলেবাস প্রকাশ করেছে ঢাকা শিক্ষা বোর্ড। এ বিষয়ে সংশ্লিষ্টদের জানাতে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোর অধ্যক্ষ ও প্রধান শিক্ষকদের নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

এদিকে পরীক্ষার্থীদের উদ্দেশে এক অনুষ্ঠানে শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি বলেছেন, ‘২০২০ সালে এইচএসসি পরীক্ষার্থীরা পরীক্ষা দেওয়ার জন্য সব প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছিল, কিন্তু সে সময় সংক্রমণের হার বেশি থাকায় সরকার তাদের নিরাপত্তার কথা চিন্তা করে অটোপাসেরর চিন্তা করেছে। কিন্তু ২০২১ সালে যারা এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষার্থী, তাদের ক্ষেত্রে বিষয়টি ভিন্ন। তারা তেমন প্রস্তুতি নিতে পারেনি। সুতরাং তাদের অটোপাস দেওয়া সম্ভব নয়। সংক্রমণের হারও আস্তে আস্তে কমে যাচ্ছে।’ 

গতকাল সোমবার রাজধানীর জাতীয় শিক্ষা ব্যবস্থাপনা একাডেমিতে (নায়েম) সদ্য স্থাপিত বঙ্গবন্ধু ম্যুরালের উন্মোচন এবং ১৫৯তম বুনিয়াদি প্রশিক্ষণ কোর্সের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তাঁর সরকারি বাসভবন থেকে অনলাইনে যুক্ত হয়ে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন তিনি। নায়েমের মহাপরিচালক প্রফেসর আহম্মেদ সাজ্জাদ রশীদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক প্রফেসর ড. সৈয়দ মো. গোলাম ফারুক।

শিক্ষামন্ত্রী বলেছেন, এ বছর এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষা সংক্ষিপ্ত সিলেবাসে অনুষ্ঠিত হবে। এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষার্থীদের জন্য তিন থেকে  চার মাসে প্রস্তুতি নেওয়া যাবে—এমন একটি সংক্ষিপ্ত সিলেবাস প্রণয়ন করা হয়েছে, যার ভিত্তিতে এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। তার আগে শিক্ষার্থীরা তিন-চার মাস পরীক্ষার প্রস্তুতি নেওয়ার সুযোগ পাবে।

অটোপাসের দাবিতে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের উদ্দেশে শিক্ষামন্ত্রী বলেন, ‘কোনো রকম স্বাস্থ্যবিধি না মেনে আপনারা যেভাবে আন্দোলন করছেন, এ ক্ষেত্রে বরং করোনায় আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা বেশি। সব রকমের স্বাস্থ্যবিধি মেনে শিক্ষার্থীদের সর্বোচ্চ নিরাপত্তা নিশ্চিত করে পরীক্ষার ব্যবস্থা করা হবে। সুতরাং আপনাদের এই বিষয়ে উদ্বিগ্ন হওয়ার কিছু নেই।’

জানা যায়, বিজ্ঞান, ব্যবসায় শিক্ষা ও মানবিক বিভাগের মোট ২৮টি বিষয়ের সংক্ষিপ্ত সিলেবাস প্রকাশ করা হয়েছে। জাতীয় শিক্ষাক্রম ও পাঠ্যপুস্তক বোর্ড (এনসিটিবি) এবারের এসএসসি পরীক্ষার্থীদের জন্য সংক্ষিপ্ত এই পাঠ্যসূচি তৈরি করেছে।

মহামারির কারণে যেহেতু প্রায় ১১ মাস ক্লাস করানো যায়নি, তাই এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষার্থীদের জন্য পুনর্বিন্যস্ত এই পাঠ্যসূচি ধরে তিন মাস ক্লাস করানোর পরিকল্পনা করেছে সরকার। সম্ভব হলে আগামী জুনে এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষা এবং একইভাবে জুলাই-আগস্ট মাসে এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষা নেওয়ার পরিকল্পনার কথা জানিয়েছে সরকার।

দেশে করোনাভাইরাসের প্রকোপ শুরুর পর গত বছরের ১৭ মার্চ থেকে দেশের সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ রয়েছে। ফলে গত বছর স্কুলের কোনো শ্রেণির বার্ষিক পরীক্ষা বা পঞ্চম ও অষ্টমের সমাপনী পরীক্ষা নেওয়া সম্ভব হয়নি। পরীক্ষা নিতে না পারায় গত বছরের এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষার্থীদের ফল ঘোষণা করা হবে এসএসসি ও জেএসসি পরীক্ষার ফলের ভিত্তিতে।

তবে সম্প্রতি এক নির্দেশনায় আগামী ৪ ফেব্রুয়ারির মধ্যে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলো খোলার প্রস্তুতি নিতে প্রতিষ্ঠানপ্রধানদের নির্দেশ দিয়েছে মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তর। শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার পর দশম ও দ্বাদশ শ্রেণির শিক্ষার্থীদের সপ্তাহে পাঁচ বা ছয় দিন ক্লাস করানো হবে। অন্যদের সপ্তাহে এক দিন ক্লাস করানোর পরিকল্পনার কথা জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী।

মন্তব্য