kalerkantho

শুক্রবার । ১৩ ফাল্গুন ১৪২৭। ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২১। ১৩ রজব ১৪৪২

ময়মনসিংহ-জামালপুর

প্রার্থীদের ওপর হামলা

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

২৬ জানুয়ারি, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



প্রার্থীদের ওপর হামলা

দেশের বিভিন্ন স্থানে পৌরসভা নির্বাচনকে কেন্দ্র করে সহিংসতার অভিযোগ উঠছে সরকারদলীয় প্রার্থীদের বিরুদ্ধে। গত দুই দিনে ময়মনসিংহের ঈশ্বরগঞ্জ ও গৌরীপুর এবং জামালপুরের সরিষাবাড়ীতে পক্ষ ও বিপক্ষ প্রার্থীর মধ্যে সংঘর্ষের খবর পাওয়া গেছে।

আঞ্চলিক প্রতিনিধি, ময়মনসিংহ জানান, ঈশ্বরগঞ্জ পৌরসভার বর্তমান মেয়র বীর মুক্তিযোদ্ধা আবদুস ছাত্তার এবারেও নির্বাচন করছেন। তিনি ২০১৫ সালের পৌরসভা নির্বাচনে আওয়ামী লীগ প্রার্থী হাবিবুর রহমানকে পরাজিত করে বিজয়ী হন। ছাত্তার জানান, নির্বাচনী প্রচারণার শুরুতেই পৌরসভার উন্নয়ন কর্মকাণ্ডের একাধিক ফলক ভাঙচুর করে শহরে উত্তেজনা সৃষ্টি করছে একটি চক্র। গত সপ্তাহে শহরের কাকনহাটিতে তাঁর একটি নির্বাচনী কার্যালয় ভাঙচুর করা হয়েছে। গত রবিবারও শহরের ধামদীতে সরকারি খাদ্যগুদাম এলাকায় প্রচারণা চালানোর সময় একদল দুর্বৃত্ত বৈঠা নিয়ে হামলা চালায়। হামলায় তাঁর কর্মী ও সমর্থক মো. নবী হোসেন আকন্দ (৪০) মাথায় আঘাতপ্রাপ্ত হন। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে বাপ্পা, আবদুল্লাহ ও সারোয়ার নামে তিনজনকে আটক করে। পরে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সাঈদা পারভীন ভ্রাম্যমাণ আদালত বসিয়ে আটককৃতদের ছয় হাজার টাকা জরিমানা করেন।

অন্যদিকে গৌরীপুর পৌরসভার বর্তমান মেয়র সৈয়দ রফিকুল ইসলাম মনোনয়ন না পেয়ে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে নির্বাচনে লড়ছেন। তিনি অভিযোগ করেন, নৌকার প্রার্থী শফিকুল ইসলাম হবির সমর্থকরা তাঁর প্রচারণায় বাধা দিচ্ছে। গত রবিবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে তাঁর কর্মী মেহেদী হাসান মিথুনের বাসভবনে হামলা চালিয়ে ব্যাপক ভাঙচুর করে নৌকার সমর্থকরা। মিথুন অভিযোগ করেন, কয়েক দিন ধরে তাঁকে প্রাণনাশের হুমকিসহ বিভিন্ন ধরনের ভয়ভীতি দেখিয়ে আসছিল নৌকার সমর্থকরা। তবে শফিকুল এসব অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, তাঁর বিরুদ্ধে অপপ্রচার চালানো হচ্ছে।

সরিষাবাড়ী (জামালপুর) প্রতিনিধি জানান, গতকাল সোমবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে কামরাবাদ ঝিনাই ফিলিং স্টেশন এলাকায় বিএনপির বিদ্রোহী প্রার্থী ফজলুল হক খানের ওপর আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী মনির উদ্দিনের সমর্থকরা হামলা চালায় বলে অভিযোগ উঠেছে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা