kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ২১ শ্রাবণ ১৪২৮। ৫ আগস্ট ২০২১। ২৫ জিলহজ ১৪৪২

জাফরুল্লাহ বললেন

ভারতীয় দূতাবাসের সামনের রাস্তায় ফেলানীর ভাস্কর্য করতে হবে

নিজস্ব প্রতিবেদক   

৮ জানুয়ারি, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ও ট্রাস্টি ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেছেন, ‘ফেলানী হত্যা দিবসে আমাদের নিজেদের স্বার্থে দুটি কাজ করতে হবে। দুটি ভাস্কর্য করতে হবে। একটি কুড়িগ্রামের সীমান্তে, যেখানে তাকে হত্যা করা হয়েছে। আরেকটি বাংলাদেশে অবস্থিত ভারতীয় দূতাবাসের সামনের রাস্তায়। এটার উদ্বোধন করার জন্য প্রধানমন্ত্রীকে আমন্ত্রণ জানাতে হবে। উনি সায় দিলে বোঝা যাবে উনার (শেখ হাসিনার) দেশের প্রতি কতটা দরদ আছে। আর ভারতীয় দূতাবাসের সামনের রাস্তার নাম হওয়া উচিত ফেলানী সড়ক।’

গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে রাজধানীর শিশুকল্যাণ মিলনায়তনে বাংলাদেশ লেবার পার্টির উদ্যোগে ফেলানী হত্যা দিবসে সীমান্তে আগ্রাসনবিরোধী কনভেনশনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে জাফরুল্লাহ এ কথা বলেন। ২০১১ সালের ৭ জানুয়ারি কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ী উপজেলার অনন্তপুর সীমান্তে ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনীর (বিএসএফ) গুলিতে নিহত হয় বাংলাদেশি কিশোরী ফেলানী।

ফেলানী হত্যার ১০ বছর পূর্তির দিনে ডা. জাফরুল্লাহ বলেন, ‘আমরা কথায় কথায় বলি, এটা মুসলমানদের দেশ। আলেম সমাজের প্রতি আমার একটাই অনুরোধ; তাঁরা গান-বাজনা শুনলে বিয়ে পড়াবেন না, জানাজা পড়াবেন না। এসব দিকে সময় ব্যয় না করে জনগণের অধিকার আন্দোলনের জন্য সোচ্চার হোন।’ তিনি বলেন, ‘করোনার প্রতিষেধক ভ্যাকসিন ইউরোপে যেখানে দুই ডলার, আমাদের এখানে সাড়ে চার ডলার বা পাঁচ ডলার। ভ্যাকসিন উৎপাদনে ব্যয় খুব কম। যদি এক ডলার দাম হয় তাহলে ৪০ টাকা লাভ হবে। ইউরোপীয় ইউনিয়নের যদি ভ্যাকসিনের দাম দুই ডলার হয় তাহলে আমাদের এখানে পাঁচ ডলার কেন? কারণ আমরা চুরি করি, দুর্নীতি করি, সেই কারণে ভ্যাকসিনের দাম বাড়ছে। আজ সবাইকে উপলব্ধি করতে হবে, কেন আমি ভোট দেব? কেন আমার ভোট চাই? সবাই মিলে এই দেশের মালিক আমরা।’



সাতদিনের সেরা