kalerkantho

শনিবার । ৯ মাঘ ১৪২৭। ২৩ জানুয়ারি ২০২১। ৯ জমাদিউস সানি ১৪৪২

বেড়াতে নিয়ে দুই স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণ!

আরো দুই ঘটনায় ইউপি চেয়ারম্যানসহ দুজন গ্রেপ্তার

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

২৬ নভেম্বর, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



পঞ্চগড়ের তেঁতুলিয়ায় নবম শ্রেণির দুই স্কুলছাত্রীকে বেড়াতে নিয়ে গিয়ে তাদেরই প্রেমিক ধর্ষণ করেছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় দুই প্রেমিক ও তাঁদের এক সহযোগীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। ধর্ষণের ভিডিও ছড়িয়ে ফের নির্যাতনের অভিযোগে গ্রেপ্তার হয়েছেন গাইবান্ধা সদরের লক্ষ্মীপুর ইউপি চেয়ারম্যান মোস্তাফিজুর রহমান বাদল। এ ছাড়া ঢাকার দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানার দলবদ্ধ ধর্ষণ মামলার আসামি গ্রেপ্তার হয়েছেন মাদারীপুরে। বিস্তারিত কালের কণ্ঠ’র প্রতিনিধিদের খবরে :

পঞ্চগড় : গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন তেঁতুলিয়া উপজেলার ওমর ফারুক ইমন, আনোয়ার হোসেন এবং  সোহাগ।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, গত মঙ্গলবার সকালে দুই স্কুলছাত্রীকে বিভিন্ন প্রলোভন দেখিয়ে বেড়াতে নিয়ে যান আনোয়ার হোসেন ও ওমর ফারুক ইমন। দিনের বেলায় তেঁতুলিয়ার বিভিন্ন এলাকায় তাঁরা ঘোরাফেরা করেন। রাতে সোহাগের সহযোগিতায় দেবনগর ইউনিয়নের একটি বাড়িতে তাঁরা যান। সেখানে এক স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণ করেন তাঁর প্রেমিক। এ সময় অন্য স্কুলছাত্রীকে তার প্রেমিক ধর্ষণের চেষ্টা করলে সে চিৎকার দেয়। তখন স্থানীয়রা ছুুটে গিয়ে দুই স্কুলছাত্রীকে উদ্ধার করে।

গাইবান্ধা : মামলার এজাহার সূত্রে জানা গেছে, গত ৩ মার্চ ন্যাশনাল সার্ভিসে চাকরির জন্য প্রত্যয়ন নিতে গাইবান্ধা সদরের লক্ষ্মীপুর ইউনিয়ন পরিষদে যান এক নারী। এ সময় ইউপি চেয়ারম্যান মোস্তাফিজুর রহমান বাদল তাঁকে কক্ষে ডেকে নিয়ে গিয়ে ধর্ষণ করেন। এ সময় চেয়ারম্যান নির্যাতনের ঘটনা ভিডিও করে রাখেন।

মাদারীপুর : ঢাকার দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানার দলবদ্ধ ধর্ষণ মামলার প্রধান আসামি মো. মিজান হোসেনকে (৩০) ঢাকার দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা