kalerkantho

রবিবার । ১০ মাঘ ১৪২৭। ২৪ জানুয়ারি ২০২১। ১০ জমাদিউস সানি ১৪৪২

পাঁচ মাস পর প্রতিমন্ত্রী পেল ধর্ম মন্ত্রণালয়

ফরিদুলের শপথগ্রহণ

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২৫ নভেম্বর, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



পাঁচ মাস পর প্রতিমন্ত্রী পেল ধর্ম মন্ত্রণালয়

পাঁচ মাসের বেশি খালি থাকার পর প্রতিমন্ত্রী পেল ধর্মবিষয়ক মন্ত্রণালয়। জামালপুর-২ আসনের সংসদ সদস্য ফরিদুল হক খান দুলালকে ধর্ম প্রতিমন্ত্রী হিসেবে মন্ত্রিপরিষদে জায়গা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। গতকাল মঙ্গলবার সন্ধ্যায় বঙ্গভবনে রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ নতুন প্রতিমন্ত্রীকে শপথবাক্য পাঠ করান। ফরিদুল হক তৃতীয়বারের মতো নির্বাচিত সংসদ সদস্য।

এর আগে ধর্ম প্রতিমন্ত্রীর দায়িত্বে থাকা আওয়ামী লীগ নেতা শেখ মো. আব্দুল্লাহ সংসদ সদস্য না হলেও টেকনোক্র্যাট কোটায় মন্ত্রিসভায় এসেছিলেন। গত ১৩ জুন তাঁর মৃত্যু হয়। এর পর থেকে মন্ত্রী হিসেবে মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব পালন করছিলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। করোনার কারণে গতকালের শপথ অনুষ্ঠানে চিরাচরিত কিছু বিষয়ের ব্যত্যয় ছিল। সাধারণত মন্ত্রিসভার নতুন সদস্যের শপথ অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রীসহ মন্ত্রিসভার সদস্যরা উপস্থিত থাকেন, কিন্তু গতকালের অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা উপস্থিত ছিলেন না। অনুষ্ঠানে একেবারে প্রয়োজনের বাইরে কাউকে আমন্ত্রণ জানানো হয়নি বলেও মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ সূত্রে জানা গেছে। অনুষ্ঠানের আনুষ্ঠানিকতাও ছিল খুবই সংক্ষিপ্ত।

২০১৯ সালের ৭ জানুয়ারি প্রধানমন্ত্রী হিসেবে টানা তৃতীয় মেয়াদে নিজের টিম নিয়ে শপথবাক্য পাঠ করেছিলেন শেখ হাসিনা। মন্ত্রিসভায় চার দফায় বিভিন্ন পরিবর্তনের মাধ্যমে বর্তমানে প্রধানমন্ত্রীসহ ২৬ জন মন্ত্রী, ১৯ জন প্রতিমন্ত্রী এবং তিনজন উপমন্ত্রী নিয়ে মোট ৪৮ জন সদস্য রয়েছেন।

গতকালের শপথ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান, তথ্যমন্ত্রী হাছান মাহ্মুদ। এ ছাড়া সরকারের উচ্চপদস্থ কয়েকজন কর্মকর্তা উপস্থিত ছিলেন।

ধর্ম মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, আজ বুধবার ধানমণ্ডির ৩২ নম্বরে জাতির পিতার প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ শেষে ধর্ম মন্ত্রণালয়ে যাওয়ার কথা রয়েছে ফরিদুল হক খানের।

আনন্দ মিছিল, মিষ্টিমুখ

জামালপুর প্রতিনিধি জানান, ফরিদুল হক খান ধর্ম প্রতিমন্ত্রী হিসেবে শপথ নেওয়ায় তাঁর নির্বাচনী এলাকা জামালপুরের ইসলামপুরে গতকাল সন্ধ্যায় আনন্দ মিছিল, দোয়া মাহফিল ও মিষ্টি বিতরণ করেছেন আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা।

দলীয় সূত্র জানায়, ফরিদুল হক খান গতকাল সন্ধ্যায় শপথ নেওয়ার পরপরই ইসলামপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি আব্দুল লতিফ সরকারের নেতৃত্বে একটি আনন্দ মিছিল বের করা হয়। মিছিলটি স্থানীয় বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে বটতলা মোড়ে গিয়ে শেষ হয়। পরে উপজেলা আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে শোকরানা সভা ও দোয়া মাহফিলের আয়োজন করা হয়। সভা শেষে নেতাকর্মীরা একে অপরকে মিষ্টিমুখ করান এবং স্থানীয় লোকজনের মাঝে মিষ্টি বিতরণ করেন।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা