kalerkantho

শনিবার । ৯ মাঘ ১৪২৭। ২৩ জানুয়ারি ২০২১। ৯ জমাদিউস সানি ১৪৪২

সংক্ষিপ্ত

বিচারক স্বামীর ‘বিচার’ চাইলেন যবিপ্রবি শিক্ষক

যশোর প্রতিনিধি   

২৪ নভেম্বর, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ১ মিনিটে



বিচারক স্বামীর বিরুদ্ধে যৌতুক আইনে দায়ের মামলায় ন্যায়বিচার না পাওয়ার আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (যবিপ্রবি) ইংরেজি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ফারজানা নাসরিন। গতকাল সোমবার দুপুরে যশোর প্রেস ক্লাবে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলন তিনি এ আশঙ্কা করেন।

ফারজানা নাসরিনের স্বামী জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মো. মাসুদ রানা। বর্তমানে তিনি নীলফামারীর চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে কর্মরত। গত ১৪ ফেব্রুয়ারি তাঁদের বিয়ে হয়। ফারজানা নাসরিন লিখিত বক্তব্যে বলেন, বিয়ের পর মাসুদ রানা ঢাকায় প্লট কেনার জন্য ১০ লাখ টাকা দাবি করেন। এ নিয়ে তাঁর ওপর শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন শুরু হয়। একপর্যায়ে পাঁচ লাখ টাকা দেওয়া হয়। কিছু দিন পর বাকি টাকার জন্য নির্যাতন শুরু করেন। পরে তিনি যশোরে বাবার বাড়িতে ফিরে আসেন এবং ১৪ সেপ্টেম্বর যশোরের আমলি আদালতে যৌতুক আইনে মামলা করেন। 

তিনি বলেন, এরপর ১৮ সেপ্টেম্বর মাসুদ রানা, তাঁর বোন রানী ও বোনজামাই জিয়াউর রহমানকে সঙ্গে নিয়ে আপস করতে আসেন। এ সময় ফের তাঁরা মারধর করেন বলে দাবি ফারজানার।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা