kalerkantho

শুক্রবার । ১২ অগ্রহায়ণ ১৪২৭। ২৭ নভেম্বর ২০২০। ১১ রবিউস সানি ১৪৪২

ধর্ষণের অভিযোগে বিজিবি সদস্যের বিরুদ্ধে মামলা

পৃথক স্থানে ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগে গ্রেপ্তার ১

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

২২ নভেম্বর, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



নীলফামারীর সৈয়দপুরে নবম শ্রেণির এক স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে এক বিজিবি সদস্যের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। নাটোরের বড়াইগ্রামে কিশোরীকে (১৪) ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগে একজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

সৈয়দপুর থানায় গতকাল শনিবার নির্যাতিতা স্কুলছাত্রীর মা বাদী হয়ে মামলাটি করেন। আসামি মো. আকতারুজ্জামান (২৮) বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের (বিজিবি) একজন সৈনিক ও ঢাকার পিলখানায় বিজিবির প্রধান কার্যালয়ে কর্মরত বলে জানা গেছে। তিনি উপজেলার বাঙ্গালীপুর ইউনিয়নের লক্ষ্মণপুর বালাপাড়ার (ব্রাহ্মণপাড়া) মৃত জয়নাল আবেদীনের ছেলে।

অভিযোগে বলা হয়, গত ৯ নভেম্বর বিকেলে স্কুলছাত্রীর বাড়িতে আসেন পূর্বপরিচিত আকতারুজ্জামান। এ সময় আকতারুজ্জামান ছাত্রীকে বাড়িতে তার মা-বাবার অনুপস্থিতিতে একটি মোটরসাইকেলে তুলে নিয়ে যান। পরে মা-বাবা বাড়িতে এসে মেয়েকে দেখতে না পেয়ে খোঁজাখুঁজি করেও পাননি। পরদিন রাত ৯টার দিকে আকতারুজ্জামান মেয়েটিকে তাদের বাড়ির সামনে নামিয়ে দিয়ে যান। সে বাড়িতে ঢুকলে তাকে বেশ অসুস্থ অবস্থায় পান মা-বাবা। এ সময় সে পরিবারের জিজ্ঞাসাবাদে অসংলগ্ন কথাবার্তা বলছিল। তাকে বাড়িতে রেখে চিকিৎসা দেওয়া হয়। কিন্তু তার অবস্থার অবনতি হওয়ায় পরিবার তাকে ১২ নভেম্বর নীলফামারী সদর হাসপাতালে ভর্তি করে। পরে সেখান থেকে তাকে রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ওসিসিতে স্থানান্তর করা হয়। সেখানে সে চিকিৎসাধীন।

সৈয়দপুর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মো. আতাউর রহমান বলেন, মামলাটি গুরুত্বের সঙ্গে তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। ভুক্তভোগী সুস্থ হয়ে উঠলেই ঘটনার বিষয়ে তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করাসহ তার ডাক্তারি পরীক্ষা করা হবে।

নাটোরের বড়াইগ্রাম উপজেলার জোনাইল ইউনিয়নের দিঘইর গ্রাম থেকে শুক্রবার রাতে গ্রেপ্তার হওয়া ব্যক্তির নাম মোজাম্মেল হক (৫০)। তিনি দিঘইর গ্রামের মৃত মসলেম উদ্দিনের ছেলে।

মামলা সূত্রে জানা যায়, শুক্রবার বিকেলে কিশোরী মেয়েকে বাড়িতে রেখে বাইরে কাজে গিয়েছিলেন দিনমজুর মা-বাবা। এ সময় পূর্বপরিচিত মোজাম্মেল এসে জানতে চান বাড়িতে মেয়েটির মা-বাবা আছেন কি না। মা-বাবা বাড়িতে নেই জানালে মোজাম্মেল ঘরে ঢুকে কিশোরীকে কথা আছে বলে ভেতরে ডেকে নেন এবং ধর্ষণের চেষ্টা চালান।

[প্রতিবেদনটি তৈরিতে তথ্য দিয়েছেন কালের কণ্ঠ’র সংশ্লিষ্ট এলাকার প্রতিনিধিরা]

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা