kalerkantho

শনিবার । ১৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৭। ২৮ নভেম্বর ২০২০। ১২ রবিউস সানি ১৪৪২

ঘরবন্দি ভাই-বোনের ‘ফাঁসি ফাঁসি খেলা’

আঞ্চলিক প্রতিনিধি, চাঁপাইনবাবগঞ্জ   

২৯ অক্টোবর, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



দুই ভাই-বোন। ঈশিতার বয়স ৯ বছর, শাহীনের পাঁচ। চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জ পৌর এলাকার রসুলপুর গ্রামের মোকসিদুর রহমানের দুই সন্তানকে দিনের বেশির ভাগ সময় বাড়িতে একাই থাকতে হয়। বাবা থাকেন দোকানে; বিচ্ছেদ হওয়ায় মা নেই।

প্রতিদিনের মতো গতকাল বুধবার দুপুরের দিকে দুই সন্তানকে বাড়িতে তালা দিয়ে শিবগঞ্জ বাজারে নিজের ওষুধের দোকানে যান বাবা। বিকেলে হঠাৎ প্রতিবেশীর মাধ্যমে বাবা খবর পান, ঈশিতা মারা গেছে। সুলতানা খাতুন ঈশিতা নাচোল এশিয়ান স্কুলের পঞ্চম শ্রেণির ছাত্রী ছিল।

মোকসিদুর রহমান জানান, তাঁর দুই সন্তান প্রায়ই ‘সিআইডি’ নামের একটি অনুষ্ঠান দেখত। সেখানে তারা ফাঁসির কোনো দৃশ্য দেখেছে। পরে সেই ফাঁসির অভিনয় করতে গিয়ে ঈশিতার মৃত্যু হয়।

মোকসিদুর বলেন, “ঈশিতা প্রথমে শাহীনকে বলে, ‘আমি তোকে জাদু দেখাব। কিছু হলে আমার মুখে পানি ছিটাবি।’ এরপর ঈশিতা জানালার শিকের সঙ্গে ওড়না বেঁধে গলায় আটকায়। কিন্তু হঠাৎ তার পায়ের নিচ থেকে বালিশ সরে গেলে গলায় ফাঁস লেগে যায়। এরপর মুখ দিয়ে রক্ত বের হতে থাকলে শাহীন চিৎকার শুরু করে। তার চিৎকার শুনে আশপাশের মানুষ আসতে আসতে ঈশিতার মৃত্যু হয়।”

শিবগঞ্জ থানার এসআই আবু সাইদ জানান, মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে। একটি অপমৃত্যুর মামলাও হয়েছে।

 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা