kalerkantho

বুধবার । ১৩ মাঘ ১৪২৭। ২৭ জানুয়ারি ২০২১। ১৩ জমাদিউস সানি ১৪৪২

তিতাসের সিবিএ নেতার বিরুদ্ধে দুদকের মামলা

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২৮ অক্টোবর, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



প্রায় দুই কোটি টাকার অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগে তিতাস গ্যাস ট্রান্সমিশন অ্যান্ড ডিস্ট্রিবিউশন কম্পানি লিমিটেডের সহকারী ব্যবস্থাপক ও সিবিএ নেতা সৈয়দ নাসির উদ্দিন আহাম্মদের বিরুদ্ধে মামলা করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। গতকাল মঙ্গলবার দুদকের ঢাকা সমন্বিত জেলা কার্যালয়ে মামলাটি করেছেন দুদকের উপসহকারী পরিচালক ও অনুসন্ধান কর্মকর্তা ফেরদৌস রহমান। দুদক পরিচালক (জনসংযোগ) প্রণব কুমার ভট্টাচার্য্য এই তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

মামলা সূত্রে জানা যায়, সিবিএ নেতা নাসির উদ্দিন দুদকে দেওয়া তাঁর সম্পদ বিবরণীতে এক কোটি ১৬ লাখ ৭২ হাজার ১৪০ টাকার স্থাবর-অস্থাবর সম্পত্তির তথ্য গোপন করেছেন বা মিথ্যা তথ্য দিয়েছেন। এটি দুদক আইন ২০০৪-এর ২৬ (২) ধারায় শাস্তিযোগ্য অপরাধ।

দুদকের নোটিশের পরিপ্রেক্ষিতে ২০১৯ সালের ৬ মে দাখিল করা সম্পদ বিবরণীতে নাসির উদ্দিন ১৭ লাখ ৫৫ হাজার ৬২৩ টাকার স্থাবর এবং ৯ লাখ ৪০ হাজার টাকার অস্থাবর সম্পত্তি মিলিয়ে মোট ২৬ লাখ ৯৫ হাজার ৬২৩ টাকার সম্পদ দেখিয়েছেন।

দুদকের অনুসন্ধানে তিনি সব মিলিয়ে এক কোটি ৯৭ লাখ টাকার বেশি স্থাবর-অস্থাবর অবৈধ সম্পদ গড়েছেন বলে তথ্য বেরিয়ে এসেছে। জানা গেছে, অবৈধ সম্পদের মধ্যে নাসির উদ্দিনের নামে আইএফআইসি ব্যাংকের মিরপুর শাখায় এফডিআর হিসাবে এক কোটি টাকা পাওয়া গেছে। এ ছাড়া একই ব্যাংকের সঞ্চয়ী হিসাব ও তাঁর প্রতিষ্ঠান সৈয়দ এন্টারপ্রাইজের হিসাবে ৮২ হাজার ৭৬৩ টাকা রয়েছে। সব মিলিয়ে এক কোটি ৮২ হাজার ৭৬৩ টাকার সন্ধান মিলেছে, যা তিনি সম্পদ বিবরণীতে উল্লেখ করেননি।

তিতাস গ্যাস ট্রান্সমিশনের সিবিএর যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও সহকারী ব্যবস্থাপক সৈয়দ নাসির উদ্দিন এবং তাঁর ভাই যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আয়াজ উদ্দিনকে ২০১৮ সালের ১২ সেপ্টেম্বর জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। জিজ্ঞাসাবাদে তাঁরা অবৈধভাবে সম্পদ অর্জনের অভিযোগ অস্বীকার করেন।

 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা