kalerkantho

রবিবার । ১০ মাঘ ১৪২৭। ২৪ জানুয়ারি ২০২১। ১০ জমাদিউস সানি ১৪৪২

নারীর মরদেহে ছুরিকাঘাতের চিহ্ন ডান চোখ তোলা

কালিয়াকৈর (গাজীপুর) প্রতিনিধি   

২৬ অক্টোবর, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



গাজীপুরের কালিয়াকৈরে ডান চোখ তোলা অবস্থায় এক নারীর মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। তাঁর নাম জেসমিন আক্তার (২৩)। গতকাল রবিবার দুপুরে উপজেলার সফিপুর এলাকার জঙ্গল থেকে মরদেহটি উদ্ধার করা হয়।

নিহত জেসমিন দিনাজপুরের পারবতীপুর থানার পাঠানপাড়া গ্রামের সুলতান আহম্মদের মেয়ে। গত শনিবার রাত ৮টার দিকে একটি ফোন পেয়ে বাসা থেকে বের হয়েছিলেন তিনি। কালিয়াকৈরের পূর্ব চান্দরা বোর্ডমিল এলাকায় মা-বাবার সঙ্গে ভাড়া বাসায় থাকতেন তিনি।

পরিবার ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, দুই মাস আগে পূর্ব চান্দরা এলাকার আমিনুল মিয়ার ছেলে ওমর ফারুকের সঙ্গে বিচ্ছেদ হয় জেসমিনের। তিন বছর আগে বিয়ে হয়েছিল। দুই বছর বয়সী একটি মেয়ে আছে তাঁদের।

পরিবারের সন্দেহ, জেসমিনের তালাকপ্রাপ্ত স্বামীর বাড়ির লোকজন হত্যাকাণ্ডে জড়িত থাকতে পারে।

গত শনিবার রাতের কোনো একসময় জেসমিনকে হত্যা করা হয় বলে ধারণা করছে পুলিশ। মৌচাক পুলিশ ফাঁড়ির এসআই লিটন বলেন, নিহতের বুকের ডানপাশের নিচে ছুরির দুটি এবং তলপেটে তিনটি আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। এ ছাড়া নিহতের ডান চোখ তুলে ফেলা হয়েছে। হত্যার পর যাতে জেসমিনকে কেউ চিনতে না পারে সে জন্য চোখ তুলে ফেলা হয় বলে মনে করেন তিনি।

কালিয়াকৈর থানার ওসি (অপারেশন) মুজাহিদুল ইসলাম বলেন, হত্যার রহস্য উদ্ঘাটনসহ দোষীদের গ্রেপ্তারে চেষ্টা চলছে। এ ছাড়া ধর্ষণের পর হত্যা করা হয়েছে কি না, ময়নাতদন্তের পর তা নিশ্চিত হওয়া যাবে।

ময়নাতদন্তের জন্য লাশ গাজীপুর শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা