kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ১১ অগ্রহায়ণ ১৪২৭। ২৬ নভেম্বর ২০২০। ১০ রবিউস সানি ১৪৪২

যুবলীগ নেতা মনিরুল হত্যা

চাকরি করছেন ফাঁসির আসামি

আঞ্চলিক প্রতিনিধি, চাঁপাইনবাবগঞ্জ   

২৫ অক্টোবর, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



চাকরি করছেন ফাঁসির আসামি

চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জে যুবলীগ নেতা মনিরুল ইসলাম হত্যা মামলায় মৃত্যুদণ্ডাদেশপ্রাপ্ত অন্যতম আসামি মো. সিরাজুল ইসলাম মুন্সিকে এখনো চাকরিচ্যুত করা হয়নি বলে অভিযোগ। তাঁর এমপিও-ও বাতিল করা হয়নি বলে অভিযোগ উঠেছে।

প্রসঙ্গত, ২০১৪ সালের ২৪ অক্টোবর শিবগঞ্জ স্টেডিয়ামের কাছে মনিরুল ইসলামকে গুলি করে হত্যা করা হয়। তিনি উপজেলার সোনামসজিদ স্থলবন্দর সিঅ্যান্ডএফ এজেন্ট অ্যাসোসিয়েশনের কোষাধ্যক্ষ ও শাহবাজপুর ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক ছিলেন। এ ঘটনায় তাঁর স্ত্রী রহিমা বেগম শিবগঞ্জ থানায় ১৫ জনের বিরুদ্ধে হত্যা মামলা করেন।

বিচারকাজ শেষে গত বছরের ২০ জুন অ্যাসোসিয়েশনের সিনিয়র সহসভাপতি ও বালিয়াদিঘী দারুস সুন্নাহ গোলিস্থীয়া দাখিল মাদরাসার সহসুপার সিরাজুলসহ ৯ আসামিকে মৃত্যুদণ্ডাদেশ দেন জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক। এ সময় দুজনকে যাবজ্জীবন দেওয়া হয়। তবে আসামিরা উচ্চ আদালতে আপিল করায় এখনো রায় কার্যকর হয়নি।

অভিযোগের বিষয়ে বালিয়াদিঘী দারুস সুন্নাহ গোলিস্থীয়া দাখিল মাদরাসার সুপার আব্দুল মালেক বলেন, ‘আদালত রায় ঘোষণার কিছুদিন পরই সিরাজুল ইসলাম মুন্সিকে চাকরি থেকে বরখাস্তের আদেশ চেয়ে নীতিমালা অনুযায়ী মাদরাসা শিক্ষা বোর্ড ডিজি বরাবর আবেদন পাঠানো হয়েছে।’

তিনি আরো বলেন, ‘সিরাজুল ইসলামের বেতন-ভাতা বন্ধ আছে। কিন্তু এখনো তাঁর এমপিও বন্ধ হয়নি। এই এমপিও বন্ধ করা আমার পক্ষে সম্ভব নয়। এমপিও বন্ধ করার ক্ষমতা মাদরাসা শিক্ষা বোর্ড কর্তৃপক্ষের।’

উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মীর মুস্তাফিজুর রহমানের দাবি, ‘কোনো শিক্ষককে চাকরিচ্যুত করতে হলে (সংশ্লিষ্ট) শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান কর্তৃপক্ষের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে বোর্ড গঠন করা হয় এবং বোর্ড অভিযুক্ত ব্যক্তিকে চাকরিচ্যুতসহ সব ব্যবস্থা নেয়। কিন্তু সিরাজুল ইসলাম মুন্সির বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য আমাদের কাছে এখনো অভিযোগ আসেনি।’

 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা