kalerkantho

মঙ্গলবার । ১৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৭। ১ ডিসেম্বর ২০২০। ১৫ রবিউস সানি ১৪৪২

৯৯৯ নম্বরে ফোন দিয়ে রক্ষা পেল দুই তরুণী

নিজস্ব প্রতিবেদক, চট্টগ্রাম   

৭ অক্টোবর, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



জাতীয় জরুরি সেবা নম্বর ৯৯৯-এ ফোন দিয়ে ধর্ষক-প্রতারকের হাত থেকে রক্ষা পেয়েছেন দুই তরুণী। পুলিশ তাঁদের উদ্ধার করার পাশাপাশি দুজনকে গ্রেপ্তার করেছে। চট্টগ্রামে গত সোমবার এ ঘটনা ঘটলেও গতকাল মঙ্গলবার তা প্রকাশ পেয়েছে।

গ্রেপ্তার হওয়া দুজন হলেন—চট্টগ্রামের সাতকানিয়ার ইছামতিরকুল এলাকার জাফর আহম্মদের ছেলে দেলোয়ার (২৫) ও রাউজানের রাজামিয়া তালুকদারবাড়ির হানিফ তালুকদারের মেয়ে শাহীন আক্তার (২৪)। তাঁদের বিরুদ্ধে মানবপাচার প্রতিরোধ ও দমন আইনে একটি মামলা হয়েছে।

চট্টগ্রামের বাকলিয়া থানার ওসি মোহাম্মদ নেজাম উদ্দিন বলেন, উদ্ধারকৃত দুই তরুণীর একজন জাতীয় জরুরি সেবা নম্বর ৯৯৯-এ ফোন করে তাঁদের উদ্ধারের আর্তি জানান।

তাঁদের বাকলিয়া থানার কল্পলোক এলাকার একটি বাসায় আটকে রাখা হয়েছে বলে জানালেও পুরো ঠিকানা বলতে পারছিলেন না। ফোনেই তাঁদের কাছ থেকে আটক থাকা ভবনের আশপাশের দৃশ্য সম্পর্কে ধারণা নেওয়া হয়। এরপর পুলিশ ভবনটি শনাক্ত করে অভিযান চালিয়ে দুই তরুণীকে উদ্ধার ও তাঁদের আটকে রাখার অভিযোগে দুইজনকে গ্রেপ্তার করে। ওই দুই তরুণীকে কল্পলোক আবাসিক এলাকার এমিরেটার্স প্যালেস নামে এক ভবনের একটি ফ্ল্যাটে আটকে রাখা হয়েছিল।

উদ্ধারকৃত তরুণীরা জানান, তাঁরা কর্ণফুলী ইপিজেডে একটি পোশাক কারখানার কর্মী ছিলেন। করোনাভাইরাস সংক্রমণের প্রভাবে তাঁরা চাকরি হারান। এরপর অন্য এক বান্ধবী চাকরি দেওয়ার নাম করে রাকিব নামে এক ব্যক্তির সঙ্গে মোবাইল ফোনে পরিচয় করিয়ে দেয়। সেই সূত্র ধরে তাঁদের গত ৩ অক্টোবর রাতে ওই ফ্ল্যাটে নিয়ে আসা হয়। সেখানে তাঁদের দিয়ে পতিতাবৃত্তির চেষ্টা চালানো হয়। মুক্তির কোনো উপায় না দেখে তাঁরা ৯৯৯ নম্বরে ফোন করেন।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা