kalerkantho

মঙ্গলবার । ১১ কার্তিক ১৪২৭। ২৭ অক্টোবর ২০২০। ৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

টাইম স্কেল বাতিল

শিক্ষকদের পক্ষে আদালত অবমাননার নোটিশ সরকারকে

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২ অক্টোবর, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



হাইকোর্টের স্থগিতাদেশের পরও প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৪৮ হাজার ৭২০ জন শিক্ষকের টাইম স্কেল বাতিল এবং টাইম স্কেল বাবদ নেওয়া অর্থ ফেরত দেওয়ার নির্দেশ বহাল রাখায় সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিদের প্রতি আদালত অবমাননার নোটিশ দেওয়া হয়েছে। অর্থ মন্ত্রণালয়ের সচিব আব্দুর রউফ তালুকদার, উপসচিব রওনক আফরোজা সুমা, প্রাথমিক ও গণশিক্ষা সচিব আকরাম আল হোসেন এবং হিসাব মহানিয়ন্ত্রক জহিরুল ইসলাম বরাবর এ নোটিশ পাঠানো হয়েছে।

গতকাল বৃহস্পতিবার শিক্ষকদের পক্ষে সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী সেলিনা আকতারের পাঠানো নোটিশে ৭ অক্টোবরের মধ্যে হাইকোর্টের আদেশ বাস্তবায়ন চাওয়া হয়েছে। অন্যথায় তাঁদের বিরুদ্ধে আদালত অবমাননার মামলা করা হবে বলে নোটিশে উল্লেখ করা হয়েছে। 

প্রায় ৩৭ হাজার বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষকদের চাকরি জাতীয়করণ করা হয় ১৯৭৩ সালে। পরবর্তী সময়ে ২০১৩ সালের ৯ জানুয়ারি শিক্ষক মহাসমাবেশে ২৬ হাজার ১৯৩টি বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রায় এক লাখ চার হাজার ৭৭২ জন শিক্ষকের চাকরি জাতীয়করণ করা হয়, কিন্তু চলতি বছরের ১২ আগস্ট অর্থ মন্ত্রণালয় ৪৮ হাজার ৭২০ জন শিক্ষকের ওই টাইম স্কেল বাতিল করে একটি আদেশ জারি করে। একই সঙ্গে টাইম স্কেল বাবদ নেওয়া অর্থ ফেরত দিতে বলা হয়।

আদেশটির বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে গত ৩১ আগস্ট হাইকোর্টে রিট আবেদন করা হয়। বাংলাদেশ প্রাথমিক শিক্ষক কল্যাণ সমিতির সাংগঠনিক সম্পাদক ও রাজশাহীর গাঙ্গোপাড়া বাগমারা প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক হাবিবুর রহমানসহ কয়েকজন শিক্ষক এ রিট আবেদন করেন। ওই দিন হাইকোর্ট ছয় মাসের জন্য অর্থ মন্ত্রণালয়ের আদেশ স্থগিত করে দেন, কিন্তু হাইকোর্টের স্থগিতাদেশ উপেক্ষা করে গত ২৪ সেপ্টেম্বর অর্থ মন্ত্রণালয় ৪৮ হাজার ৭২০ জন শিক্ষকের ক্ষেত্রে টাইম স্কেল বাতিল করে অতিরিক্ত অর্থ ফেরত নেওয়ার জন্য হিসাব মহানিয়ন্ত্রককে নির্দেশ দেয়।

মন্তব্য