kalerkantho

রবিবার । ১৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৭। ২৯ নভেম্বর ২০২০। ১৩ রবিউস সানি ১৪৪২

সংবাদের প্রতিবাদ ও প্রতিবেদকের বক্তব্য

১ অক্টোবর, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



গত ২৬ সেপ্টেম্বর কালের কণ্ঠে প্রকাশিত ‘আরো দুই মালেক’ শীর্ষক সংবাদের প্রতিবাদ জানিয়েছেন জাতীয় পানি উন্নয়ন শ্রমিক কর্মচারী লীগের সভাপতি মাহবুব আলম। তিনি দাবি করেছেন, সংবাদটি মিথ্যা, বানোয়াট, ভিত্তিহীন, কুরুচিপূর্ণ ও কল্পনাপ্রসূত। মাহবুব আলমের ভাষ্য, তিনি আগে কুয়েতে ছিলেন, সেখান থেকে এরশাদ সরকার দেশে ফিরিয়ে এনে ক্ষতিপূরণের টাকা দেয়। নিজেরও গচ্ছিত টাকা ছিল। এর পাশাপাশি আত্মীয়-স্বজনের সহযোগিতা নিয়ে তিনি ১.৬৩ শতাংশ জমির ওপর অল্প অল্প করে পাকা বাড়ি নির্মাণ করেন। তাঁর সংগঠনটি এখন শ্রম মন্ত্রণালয়ের নিবন্ধিত বলে দাবি করেছেন। নিয়োগ বাণিজ্যের সঙ্গে জড়িত নন দাবি করে মাহবুব বলেছেন, যাঁদের চাকরি দেওয়ার কথা বলা হয়েছে, তাঁরা নিজেদের যোগ্যতা অনুযায়ী চাকরি ও বাসা বরাদ্দ পেয়েছেন। যাত্রাবাড়ী ওয়াপদা কলোনির পুকুরে কল্যাণ সমিতির মাধ্যমে মাছ চাষ হয় এবং তা কলোনিবাসী সবাই মিলে ভাগ-বণ্টন করে নেন।

প্রতিবেদকের বক্তব্য : অভিযোগ পাওয়ার পর প্রতিবেদক অনুসন্ধান করে যেসব বিষয়ে সত্যতা পেয়েছেন সেগুলোর বিষয়ে মাহবুব আলমের বক্তব্যসহ প্রতিবেদনটি প্রকাশ করা হয়। প্রতিবাদকারী তাঁর একটি বাড়ির ব্যাখ্যা দিলেও অন্য সম্পত্তির বিষয়ে প্রতিবাদলিপিতে কিছু বলেননি। এমনকি তাঁর ভাইয়ের ছেলে কর্তৃক যাত্রাবাড়ী ওয়াপদা কলোনির ভেতরে দৌরাত্ম্যের বিষয়েও কিছু বলেননি। এ ছাড়া ওই প্রতিবেদন ছাপার পর কালের কণ্ঠ’র কাছে তাঁর বিষয়ে আরো বেশ কিছু অভিযোগ এসেছে, যেগুলোর অনুসন্ধান চলছে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা