kalerkantho

মঙ্গলবার । ৪ কার্তিক ১৪২৭। ২০ অক্টোবর ২০২০। ২ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

যশোর শিশু কেন্দ্র

চিকিৎসা নিতে গিয়ে পালাল কিশোর

যশোর প্রতিনিধি   

২৯ সেপ্টেম্বর, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



যশোর শিশু উন্নয়ন কেন্দ্রের (বালক) এক বন্দি (১৬) পালিয়েছে। যশোর জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে গিয়ে গতকাল সোমবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে পালিয়ে যায় সে। এ ঘটনায় যশোর কোতোয়ালি থানায় একটি জিডি হয়েছে।

পালিয়ে যাওয়া কিশোরের নাম রাজু বিশ্বাস। সে ফরিদপুর জেলার বোয়ালমারী এলাকার আব্দুল ওহাব বিশ্বাসের ছেলে। তিন সপ্তাহ আগে পেঁয়াজ চুরির একটি মামলায় ফরিদপুর থেকে তাকে যশোর কেন্দ্রে পাঠানো হয়।

শিশু উন্নয়ন কেন্দ্রের মেডিক্যাল সহকারী নজির আহমেদ সাংবাদিকদের বলেন, ‘সকালে রাজুকে নিয়ে যশোর জেনারেল হাসপাতালে যাই। সেখানে ডাক্তার সোলায়মান কবীরকে দেখানো হয়। এরপর ওষুধ কিনতে যাই। ওই সময় রাজুকে কেন্দ্রের মাইক্রোবাসের ভেতরে রেখে বাইরে থেকে লক করা হয়। ফিরে এসে দেখি সে গাড়িতে নেই। ভেতর থেকে লক খুলে পালিয়ে গেছে।’

যশোর শিশু উন্নয়ন কেন্দ্রের (বালক) তত্ত্বাবধায়ক (সহকারী পরিচালক) জাকির হোসেন বলেন, তাঁদের কর্মীরা বাসস্ট্যান্ড, টার্মিনাল, রেলস্টেশনসহ বিভিন্ন স্থানে রাজুকে খুঁজছে। এ বিষয়ে কোতোয়ালি থানায় জিডি করা হয়েছে।

তিনি জানান, তিন সপ্তাহ আগে পেঁয়াজ চুরির একটি মামলায় ফরিদপুর থেকে তাকে যশোর কেন্দ্রে পাঠানো হয়। তার বুকে ব্যথা ও শ্বাসকষ্ট হচ্ছিল। সে কারণে গতকাল সকালে কেন্দ্রের কর্মীদের সঙ্গে তাকে যশোর জেনারেল হাসপাতালে একজন বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের কাছে পাঠানো হয়।

গত ১৩ আগস্ট এই শিশুকেন্দ্রের তিন বন্দিকে পিটিয়ে হত্যা করা হয়। এ ঘটনায় কর্তৃপক্ষের জড়িত থাকার অভিযোগ ওঠে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা