kalerkantho

মঙ্গলবার। ৫ মাঘ ১৪২৭। ১৯ জানুয়ারি ২০২১। ৫ জমাদিউস সানি ১৪৪২

বখাটেদের এসিডে ঝলসে গেল কিশোরী

নিজস্ব প্রতিবেদক, কুমিল্লা   

২৮ সেপ্টেম্বর, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



কুমিল্লায় বখাটেদের ছোড়া এসিডে এক কিশোরী দগ্ধ হওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। গত বৃহস্পতিবার ব্রাহ্মণপাড়া উপজেলার বাগড়া গ্রামে ঘটা এ ঘটনায় একজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। এদিকে দগ্ধ কিশোরী কুমিল্লা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে পোড়া যন্ত্রণায় কাতরাচ্ছে। ডাক্তাররা জানিয়েছেন, তার শরীরের ৪০ শতাংশ পুড়ে গেছে। কিন্তু তার দরিদ্র বাবা উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে ঢাকায় নিয়ে যাওয়ার টাকা জোগাড় করতে পারছেন না।

দগ্ধ খাদিজা আক্তার মনি (১৩) ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবা উপজেলার নয়নপুর গ্রামের বার্নিশ মিস্ত্রি মোসলেম মিয়ার মেয়ে। তারা ব্রাহ্মণপাড়ার বাগড়া গ্রামে ভাড়া বাড়িতে থাকে। অন্যদিকে গ্রেপ্তারকৃতের নাম হারুন। এ ঘটনায় মূল অভিযুক্ত আপন ও জাহিদ নামের স্থানীয় দুই বখাটেকে গ্রেপ্তারে অভিযান চালাচ্ছে পুলিশ। 

ভুক্তভোগীর বাবা মোসলেম মিয়া জানান, আপন ও জাহিদ পৃথকভাবে প্রায়ই খাদিজাকে প্রেমের প্রস্তাব দিত। সেই প্রস্তাবে সাড়া না দেওয়ার কারণে এ দুজন পরিকল্পিতভাবে তাকে এসিড নিক্ষেপ করেছে বলে তাদের ধারণা। বৃহস্পতিবার রাত ১১টার দিকে খাদিজা জানালার পাশে বসে মোবাইলে গান শুনছিল। এ সময় দুই-তিনজন জানালা দিয়ে খাদিজার শরীরে এসিড নিক্ষেপ করে পালিয়ে যায়। তাকে উদ্ধার করে প্রথমে কসবা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এবং পরে কুমিল্লা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। শরীরের ৪০ শতাংশ পুড়ে যাওয়ায় চিকিৎসকরা তাকে দ্রুত ঢাকায় স্থানান্তরের পরামর্শ দিয়েছেন।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা