kalerkantho

বুধবার । ১৩ মাঘ ১৪২৭। ২৭ জানুয়ারি ২০২১। ১৩ জমাদিউস সানি ১৪৪২

চার নদীবন্দরে কাকলী প্রধানের ‘নদী নেবে!’

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২৮ সেপ্টেম্বর, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



চার নদীবন্দরে কাকলী প্রধানের ‘নদী নেবে!’

নদী দিবস উপলক্ষে গতকাল সদরঘাট লঞ্চ টার্মিনালে আলোকচিত্রী কাকলী প্রধানের ‘নদী নেবে!’ শীর্ষক প্রদর্শনী উদ্বোধন করেন বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান কমোডর গোলাম সাদেক। ছবি : কালের কণ্ঠ

নতুন প্রজন্মের মাঝে নদ-নদীর রূপ, প্রকৃতি ও সৌন্দর্য সম্পর্কে ধারণা দেওয়ার পাশাপাশি বর্তমান প্রেক্ষাপট তুলে ধরতে দেশের চারটি নদীবন্দরে শুরু হয়েছে বিশেষ আলোকচিত্র প্রদর্শনী ‘নদী নেবে!’ প্রদর্শনীতে স্থান পেয়েছে সংবাদ আলোকচিত্রী কাকলী প্রধানের এক শটি নদীর ১০৭টি ছবি। প্রদর্শনীর প্রতিটি ছবির দৈর্ঘ্য ১৫ ফুট, উচ্চতা ১০ ফুট। ছবিগুলো স্থায়ীভাবেই প্রদর্শিত হবে।

গতকাল রবিবার বিকেলে ঢাকা নদীবন্দর সদরঘাট লঞ্চ টার্মিনালে প্রদর্শনীর উদ্বোধন করেন বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন কর্তৃপক্ষের (বিআইডাব্লিউটিএ) চেয়ারম্যান কমোডর গোলাম সাদেক। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন বিশিষ্ট স্থপতি ইকবাল হাবিব এবং বিআইডাব্লিউটিএর পরিকল্পনা ও পরিচালনা সদস্য মোহাম্মদ দেলোয়ার হোসেন।

বিশ্ব নদী দিবস উপলক্ষে বর্ণিল এই প্রদর্শনীর আয়োজন করেছে শিশু সংগঠন ‘ইকরিমিকরি’। প্রদর্শনীতে সহযোগিতা করছে বিআইডাব্লিউটিএ। আয়োজক সংস্থা ‘ইকরিমিকরি’ জানিয়েছে, ঢাকা নদীবন্দরের পাশাপাশি একযোগে নারায়ণগঞ্জ, বরিশাল ও চাঁদপুর নদীবন্দরেও এই প্রদর্শনীর আয়োজন করা হয়েছে।

ইকরিমিকরি ও আলোকচিত্র সাংবাদিক কাকলী প্রধানের প্রদর্শনীকে সময়োপযোগী উল্লেখ করে বিআইডাব্লিউটিএর চেয়ারম্যান কমোডর গোলাম সাদেক বলেন, নদী দখলমুক্ত করে স্বাভাবিক গতি-প্রকৃতি ফেরাতে বদ্ধপরিকর বিআইডাব্লিউটিএ। এই লক্ষ্যে সারা দেশে নদ-নদী নিয়ে কাজ করা সংগঠন ও ব্যক্তিদের নিয়ে সমন্বিতভাবে কাজ করা হবে।

স্থপতি ইকবাল হাবিব বলেন, ‘নদীর প্রবাহ ঠিক রাখতে দখল উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনায় বিআইডাব্লিউটিএকে আরো ক্ষমতা দেওয়া জরুরি। আশা করি, সংশ্লিষ্টরা বিষয়টি অনুধাবন করে পদক্ষেপ নেবে।’

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা