kalerkantho

বুধবার । ১৩ মাঘ ১৪২৭। ২৭ জানুয়ারি ২০২১। ১৩ জমাদিউস সানি ১৪৪২

সৌদি আরবের ভিসা নবায়ন

১৮টি এজেন্সির মাধ্যমে আবেদন নেবে দূতাবাস

সরাসরি দূতাবাসে নয়

কূটনৈতিক প্রতিবেদক   

২৮ সেপ্টেম্বর, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



সরাসরি দূতাবাসে নয়, অনুমোদিত ১৮টি এজেন্সির মাধ্যমে ভিসা নবায়নের আবেদন গ্রহণ করবে ঢাকায় সৌদি দূতাবাস। এ জন্য দূতাবাসের সামনে ভিড় না করে নিজ দায়িত্বে অনুমোদিত এজেন্সিগুলোর কোনো একটির সঙ্গে যোগাযোগ করার আহ্বান জানিয়েছে দূতাবাস কর্তৃপক্ষ।

অনুমোদিত এজেন্সিগুলো হলো ঢাকার শান্তিনগরের আল-খিদামাহ কনসালট্যান্সি সেন্টার, গুলশান শাহজাদপুরের আল-মাহমুদ কনসালট্যান্সি, কারওয়ান বাজারের আল-মানার কনসালট্যান্সি লিমিটেড, ফকিরাপুলের আল-নূর কনসালট্যান্সি সেন্টার, ফকিরাপুলের বিএস সার্ভিসেস, বনানীর জিটকো (বিডি) সার্ভিস, গুলশান-২-এর লামিক এন্টারপ্রাইজ লিমিটেড, বারিধারা পার্ক রোডের ম্যাকডেভিডসন বিডি ভিসা সার্ভিস, বারিধারা জে ব্লকের মিডিল ইস্ট কনসালট্যান্সি, কাকরাইল ভিআইপি রোডের এস কে গ্লোবাল সার্ভিস, গুলশান-২-এর দ্য ভিসেজ, বনানীর আল-হুমায়রা কনসালট্যান্সি সার্ভিস, পুরানা পল্টনের আল-তৈয়বা কনসালট্যান্সি সেন্টার, ফকিরাপুলের এ আই এন্টারপ্রাইজ, চট্টগ্রামের আগ্রাবাদের আমিরা কনসালট্যান্সি সার্ভিসেস, ঢাকার নয়াপল্টনের আল মারজান কনসালট্যান্সি, ধানমণ্ডির ১৪ নম্বর সড়কের (নতুন) ডিপ্লোমেট কনসালট্যান্সি ও বারিধারা জে ব্লকের ইন্ট্রাকো কনসালট্যান্সি সার্ভিস।

এদিকে সৌদি দূতাবাসের এই বিজ্ঞপ্তি সত্ত্বেও গতকাল রবিবার আটকে পড়া সৌদিপ্রবাসীদের অনেকে ঢাকার গুলশানে সৌদি দূতাবাসের সামনে গিয়ে ভিড় করেন। এ সময় তাঁদের অনেকে দাবি জানান, ভিসা আবেদনের সঙ্গে যেন তাঁদের মূল পাসপোর্ট জমা দিতে না হয়। তাঁরা মূল পাসপোর্টের প্রতিলিপি দিয়ে আবেদন করতে চান। তাঁদের দাবি, ভিসার নবায়নের জন্য মূল পাসপোর্ট জমা দিলে তাঁরা ফ্লাইটের টিকিট পাবেন না।

এদিকে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন কভিডের কারণে আটকে পড়া সৌদিপ্রবাসীদের টিকিট কেনা ও ভিসা নবায়নের ক্ষেত্রে বিশৃঙ্খলা না করার আহ্বান জানিয়েছেন। তিনি বলেছেন, সৌদি আরব বিশৃঙ্খলা বরদাশত করে না। সৌদি কর্তৃপক্ষ যদি মনে করে, আটকে পড়া লোকগুলো সৌদিতে গিয়ে বিশৃঙ্খলা করতে পারে তবে তাদের ভিসা বাতিল করতে পারে। তখন কারো কিছু করার থাকবে না।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা