kalerkantho

শুক্রবার । ১৪ কার্তিক ১৪২৭। ৩০ অক্টোবর ২০২০। ১২ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

সংক্ষিপ্ত

‘ডাকাতি-ধর্ষণ দুটিই ওদের পরিকল্পিত’

খাগড়াছড়ি প্রতিনিধি   

২৮ সেপ্টেম্বর, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ১ মিনিটে



খাগড়াছড়ি জেলা সদরের বলপাইয়া আদামে এক পাহাড়ি বাড়িতে ডাকাতি ও দলবদ্ধ ধর্ষণের ঘটনার নেপথ্য উদ্ঘাটন করতে শুরু করেছে পুলিশ। ওই ঘটনার সঙ্গে জড়িত ৯ জনই পেশাদার ডাকাত। ডাকাতি ও ধর্ষণ—দুটিই তাঁদের পরিকল্পিত ছিল। আসামিদের প্রত্যেকের নামে একাধিক মামলাও রয়েছে। প্রধান আসামি রামগড়ের তৈচালা গ্রামের মৃত আবুল কাশেমের ছেলে মো. আমিনের পরিকল্পনায় পুরো ঘটনা সংঘটিত হয়। চাঞ্চল্যকর এ ঘটনা নিয়ে গতকাল রবিবার সকালে খাগড়াছড়ি পুলিশ সুপার কার্যালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানান জেলা পুলিশ সুপার মো. আব্দুল আজিজ। সংবাদ সম্মেলনে আরো কথা বলেন চট্টগ্রাম রেঞ্জের ডিআইজি আনোয়ার হোসেন।

পুলিশ সুপার আব্দুল আজিজ জানান, ঘটনায় অংশ নেওয়া ডাকাত সদস্যরা মূলত কারাগারে থাকা অবস্থায় নিজেদের মধ্যে পরিচয় ঘটে। পূর্বপরিকল্পিতভাবে তাঁরা জেলার বিভিন্ন এলাকা থেকে অটোরিকশাযোগে খাগড়াছড়িতে পৌঁছেন। ডাকাতির সময় কেউ কেউ একাধিকবারও ধর্ষণ করেন। 

গত বুধবার মধ্যরাতে ওই ঘটনার পরপরই পুলিশ অভিযান চালিয়ে খাগড়াছড়ি ও চট্টগ্রাম থেকে সাতজনকে গ্রেপ্তার করে।

মন্তব্য