kalerkantho

মঙ্গলবার । ৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৭। ২৪ নভেম্বর ২০২০। ৮ রবিউস সানি ১৪৪২

সংক্ষিপ্ত

‘বিশ্বের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ অনলাইনকর্মী বাংলাদেশের’

নীলফামারী প্রতিনিধি   

২৫ সেপ্টেম্বর, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



‘বিশ্বের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ অনলাইনকর্মী বাংলাদেশের’

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহেমদ পলক বলেছেন, ‘বিশ্বের দ্বিতীয় সর্বোচ্চসংখ্যক অনলাইনকর্মীর দেশ বাংলাদেশ। আমাদের লক্ষ্য আগামী পাঁচ বছরে নতুন করে ১০ লাখ তরুণ-তরুণীর আইটি সেক্টরে কর্মসংস্থান নিশ্চিত করা। আমরা চাই শ্রমনির্ভর অর্থনীতির দেশ থেকে বেরিয়ে এসে মেধানির্ভর ডিজিটাল ইকোনমির দেশে পরিণত হতে।’

গতকাল বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় জেলা সদরের দারোয়ানী টেক্সটাইল মিলের পাশে হাইটেক পার্কের ১৫ একর জায়গা পরিদর্শনকালে এসব কথা বলেন তিনি।

তিনি আরো বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নীলফামারীসহ দেশের ৬৪ জেলায় দক্ষ মানবসম্পদ গড়ে তুলতে হাইটেক পার্ক স্থাপনে আন্তরিক। গত ১১ বছরে তৃণমূলে ইউনিয়ন পর্যন্ত ফাইবার অপটিক্যাল কেবল গেছে। শেখ রাসেল ডিজিটাল কম্পিউটার ল্যাব থেকে প্রযুক্তিতে শিক্ষা গ্রহণ করেছে আমাদের ছেলে-মেয়েরা, যার ফলে আজকে সাড়ে ছয় লাখ আইটি ফ্রিল্যান্সার কয়েক শ মিলিয়ন ডলার আয় করছে। এখন বিশ্বের দ্বিতীয় সর্বোচ্চসংখ্যক অনলাইনকর্মীর দেশ বাংলাদেশ।’ আগামী ২০২৩ সালের মধ্যে নীলফামারীতে হাইটেক পার্ক ও শেখ কামাল আইটি ট্রেনিং অ্যান্ড ইনকিউবেশন সেন্টার স্থাপনের কাজ শেষ হবে বলে জানান তিনি। এর আগে মন্ত্রী নীলফামারী সার্কিট হাউসের সভাকক্ষে স্থানীয় প্রশাসন ও রাজনৈতিক নেতাকর্মীদের সঙ্গে মত বিনিময় করেন। এ সময় মন্ত্রীর সঙ্গে উপস্থিত ছিলেন জেলা প্রশাসক মো. হাফিজুর রহমান চৌধুরী, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান জয়নাল আবেদীন, পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মোখলেছুর রহমান প্রমুখ।

মন্তব্য