kalerkantho

শনিবার । ১৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৭। ২৮ নভেম্বর ২০২০। ১২ রবিউস সানি ১৪৪২

পুঁজিবাজারে বিনিয়োগ

ব্যাংকগুলোর ঋণের সুদহার কমাল কেন্দ্রীয় ব্যাংক

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২৫ সেপ্টেম্বর, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



পুঁজিবাজারে বিনিয়োগ বাড়াতে রেপোর (পুনঃক্রয় চুক্তি) সুদহার দশমিক ২৫ শতাংশ কমিয়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক। গতকাল বৃহস্পতিবার ব্যাংকগুলোয় পাঠানো এক প্রজ্ঞাপনে বাংলাদেশ ব্যাংক বলেছে, এ ক্ষেত্রে রেপোর সুদহার হবে ৪.৭৫ শতাংশ, যা আগে ৫ শতাংশ ছিল। ব্যাংকগুলো যখন কেন্দ্রীয় ব্যাংক থেকে ধার নেয়, তখন তার সুদহার ঠিক হয় রেপোর মাধ্যমে। অর্থাৎ ব্যাংকগুলো এখন পুঁজিবাজারে বিনিয়োগের জন্য তহবিল তৈরি করতে ৪.৭৫ শতাংশ সুদে ঋণ পাবে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের কাছ থেকে। এই সিদ্ধান্তে পুঁজিবাজারে আরো ইতিবাচক প্রভাব পড়বে বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা।

পুঁজিবাজার চাঙ্গা করতে গত ফেব্রুয়ারিতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে দীর্ঘমেয়াদি পরিকল্পনার আওতায় ব্যাংকগুলোকে নির্ধারিত সীমার বাইরেও পুঁজিবাজারে বিনিয়োগের জন্য ২০০ কোটি টাকার ‘বিশেষ তহবিল’ গঠনের সুযোগ দিয়েছিল সরকার। আর এ জন্য ব্যাংকগুলোর টাকার প্রয়োজন হলে কেন্দ্রীয় ব্যাংক থেকে রেপোর মাধ্যমে ঋণ নিয়ে তহবিল গঠন করতে বলা হয়েছিল।

পরে গত ১০ ফেব্রুয়ারি ‘পুঁজিবাজারে বিনিয়োগের উদ্দেশ্যে বিশেষ তহবিল গঠন এবং বিনিয়োগের নীতিমালা’ শীর্ষক সার্কুলারে বলা হয়েছিল, ব্যাংকগুলো নিজস্ব অর্থে এ তহবিল গঠন করতে পারবে। না পারলে ট্রেজারি বিল/ট্রেজারি বন্ড রেপোর মাধ্যমে বাংলাদেশ ব্যাংক থেকে ঋণ নিয়ে তহবিল গঠন করতে পারবে। ইচ্ছা করলে প্রথমে নিজেদের অর্থে তহবিল গঠন করে পরে ট্রেজারি বিল/ট্রেজারি বন্ড রেপোর মাধ্যমে বাংলাদেশ ব্যাংক থেকে ওই পরিমাণ অর্থ সংগ্রহ করা যাবে।

এ সুবিধা ২০২৫ সালের ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত বলবৎ থাকবে জানিয়ে নীতিমালায় বলা হয়েছিল, প্রতিটি তফসিলি ব্যাংক, তফসিলি ব্যাংকের সাবসিডিয়ারি প্রতিষ্ঠান (মার্চেন্ট ব্যাংক ও ডিলার লাইসেন্সধারী  ব্রোকারেজ হাউস) এবং অন্যান্য মার্চেন্ট ব্যাংক ও ব্রোকারেজ হাউস (ডিলার) ‘শুধু পুঁজিবাজারে বিনিয়োগের’ জন্য সর্বোচ্চ ২০০ কোটি টাকার এই তহবিল গঠন করতে পারবে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা