kalerkantho

শনিবার । ১৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৭। ২৮ নভেম্বর ২০২০। ১২ রবিউস সানি ১৪৪২

হলি ফ্যামিলিতে অত্যাধুনিক লাশ সংরক্ষণাগার চালু

একসঙ্গে রাখা যাবে ৪০ মরদেহ

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২৫ সেপ্টেম্বর, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



রাজধানীর হলি ফ্যামিলি রেড ক্রিসেন্ট মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চালু হলো শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত অত্যাধুনিক মরদেহ সংরক্ষণাগার। এতে একসঙ্গে রাখা যাবে ৪০টি মরদেহ। রেড ক্রিসেন্ট কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, এই মরদেহ সংরক্ষণাগার দেশের স্বাস্থ্যসেবায় নতুন মাত্রা যোগ করবে। মরদহের মর্যাদাপূর্ণ ও যথাযথ ব্যবস্থাপনাকে গুরুত্ব দিয়ে ইন্টারন্যাশনাল কমিটি অব দ্য রেডক্রসের (আইসিআরসি) সহযোগিতায় নতুন এই মরদেহ সংরক্ষণাগার (হিমঘর) প্রস্তুত করা হয়েছে।

হলি ফ্যামিলি রেড ক্রিসেন্ট মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল ভবনে গতকাল সকালে এই হিমঘর উদ্বোধন করেন বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির চেয়ারম্যান সংসদ সদস্য হাফিজ আহমদ মজুমদার। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির ভাইস চেয়ারম্যান ও আইএফআরসির গভর্নিং বোর্ডের সদস্য প্রফেসর ডা. মো. হাবিবে মিল্লাত, সোসাইটির ট্রেজারার লুৎফুর রহমান চৌধুরী হেলাল, আইসিআরসি বাংলাদেশ হেড অব ডেলিগেশন পাবলো পের্চেলসি, আইসিআরসি বাংলাদেশ প্রটেকশন কো-অর্ডিনেটর হেনিং ক্রাউসে।

এর আগে বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির মহাসচিব মো. ফিরোজ সালাহ্ উদ্দিন ও আইসিআরসি বাংলাদেশ হেড অব ডেলিগেশন পাবলো পের্চেলসি নিজ নিজ প্রতিষ্ঠানের পক্ষে চুক্তি স্বাক্ষর করেন। হলি ফ্যামিলি রেড ক্রিসেন্ট মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ জানায়, এই হিমঘর একটি ৪০ ফুট ‘রেফ্রিজারেটেড স্টোরেজ কনটেইনার’ থেকে তৈরি হয়েছে। এখানে লাগানো হয়েছে উন্নতমানের স্টিলের ফ্রেম, যেন তা সর্বোচ্চ ৪০টি মরদেহ ধারণ করতে পারে। ইউনিটটিতে দেহগুলো সার্বক্ষণিক চার থেকে ছয় ডিগ্রি সেলসিয়াসে সংরক্ষণ করা হবে, যেন বাংলাদেশের আর্দ্র আবহাওয়ায় নষ্ট না হয়। এর ফলে প্রত্যেকের সুরক্ষা এবং মর্যাদা নিশ্চিত করে হলি ফ্যামিলি রেড ক্রিসেন্ট মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল এখন থেকে মরদেহ নিরাপদে সংরক্ষণ করতে পারবে। এ ছাড়া মরদেহ শনাক্তকরণ প্রক্রিয়া সম্পন্ন হওয়া পর্যন্ত এই হিমাগারে মরদেহ নিরাপদ এবং ধর্মীয় মর্যাদার সঙ্গে সংরক্ষণ করা হবে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা