kalerkantho

বুধবার । ১০ অগ্রহায়ণ ১৪২৭। ২৫ নভেম্বর ২০২০। ৯ রবিউস সানি ১৪৪২

এক পরিবার সমাজচ্যুত

খোঁজ নিতে তরফপুর গ্রামে ইউএনও

মির্জাপুর (টাঙ্গাইল) প্রতিনিধি   

২২ সেপ্টেম্বর, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



টাঙ্গাইলের মির্জাপুরে জুয়েল খান নামের এক তরুণের পরিবারকে সমাজচ্যুত করার ঘটনার খবর পেয়ে স্থানীয় প্রশাসনের কর্মকর্তারা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। গতকাল সোমবার দুপুরে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. আবদুল মালেক, থানার ওসি মো. সায়েদুর রহমান, পরিদর্শক (তদন্ত) গিয়াস উদ্দিন, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান আজহারুল ইসলাম, তরফপুর ইউপি চেয়ারম্যান সাঈদ আনোয়ার এবং মির্জাপুর বিআরডিবির সহসভাপতি আবিদ হোসেন শান্ত ঘটনাস্থল তরফপুর পাথালিয়াপাড়া গ্রাম পরিদর্শন করেছেন।

এ সময় প্রশাসনের কর্মকর্তারা উভয় পক্ষের বক্তব্য শোনেন। জুয়েল খান বলেন, চাচাতো ভাই শরিফ মাস্টারের সঙ্গে তাঁদের সীমানা বিরোধ রয়েছে। এর জের ধরে শরিফ মাস্টার সালিসের নামে গত ১ মে বহিরাগত লোক এনে তাঁর পরিবারের সদস্যদের ওপর হামলা এবং ‘খ্রিস্টান’ অপবাদ দিয়ে সমাজচ্যুত করেন।

শরিফ মাস্টার বলেন, গ্রাম্য সালিস চলাকালীন জুয়েল খান মোবাইল ফোনে ভিডিও করছিলেন। তখন সেখানে উপস্থিত মাসুদ মিয়া জুয়েলের মোবাইল ফোন কেড়ে নেন এবং তাঁদের মধ্যে ধস্তাধস্তি হয়। এ ছাড়া সমাজের একাধিক সভায় জুয়েলের বাবা উপস্থিত না হওয়া এবং মসজিদের ইমামের টাকা না দেওয়ায় সমাজের লোকজন ক্ষুব্ধ হয়ে বিচ্ছিন্ন কথা বলতে পারেন। ‘খ্রিস্টান’ অপবাদ বা সমাজচ্যুত করার বিষয়টি তিনি অস্বীকার করেন।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. আবদুল মালেক উভয় পক্ষকে সংযত থাকার পরামর্শ দেন।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা