kalerkantho

বুধবার । ৫ কার্তিক ১৪২৭। ২১ অক্টোবর ২০২০। ৩ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

‘সীমান্তে হত্যা বন্ধে সর্বোচ্চ প্রাধান্য দেওয়া হবে’

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২০ সেপ্টেম্বর, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ভারতীয় সীমান্ত রক্ষী বাহিনীর (বিএসএফ) মহাপরিচালক রাকেশ আস্থানা বলেছেন, সীমান্তে হত্যা বন্ধে সর্বোচ্চ প্রাধান্য দেওয়া হবে। সীমান্ত হত্যা শূন্যে নামিয়ে আনতে বিএসএফ প্রতিশ্রুতিবদ্ধ।  অপরাধীদের  কোনো দেশ নেই। সীমান্ত রক্ষী বাহিনীকে বলা হয়েছে মৃত্যু ঘটায় না এমন অস্ত্র ব্যবহার করতে। পরিস্থিতি চরমে পৌঁছলেই শুধু তাঁদের প্রাণঘাতী অস্ত্র ব্যবহারের অনুমতি দেওয়া হয়েছে।

গতকাল শনিবার রাজধানীর পিলখানায় বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের (বিজিবি) সদর দপ্তরে বিজিবি ও বিএসএফের মহাপরিচালক পর্যায়ে সীমান্ত সম্মেলন শেষে এক সংবাদ সম্মেলনে রাকেশ আস্থানা এসব কথা বলেন। এ সময় বিজিবি মহাপরিচালক মেজর জেনারেল সাফিনুল ইসলামও বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দেন।

এক প্রশ্নের জবাবে বিএসএফ মহাপরিচালক আরো বলেন, ‘বেশির ভাগ হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটছে রাত সাড়ে ১০টা থেকে ভোর সাড়ে ৫টার মধ্যে। হত্যাকাণ্ডের সংখ্যা শূন্যে নামিয়ে আনা হবে। এ জন্য বিজিবি-বিএসএফ সীমান্তে যৌথ টহল দেবে এবং এলাকার লোকজনের মধ্যে সচেতনতা বৃদ্ধির চেষ্টা করবে।’

বিজিবি মহাপরিচালক মেজর জেনারেল মো. সাফিনুল ইসলাম বলেন, ‘সন্ত্রাসীরা সীমান্ত অতিক্রম করে ভারতের ভেতরে ঢুকে পড়ছে। সে কারণে হত্যার ঘটনা ঘটছে।’ এই ব্যর্থতা বিজিবির কি না তা জানতে চাইলে তিনি আরো বলেন, ‘বাংলাদেশের সঙ্গে ভারতের সীমান্ত চার হাজার কিলোমিটারের বেশি। নদীনালা, পাহাড়-পর্বত আছে। তার পরও এখন পাঁচ কিলোমিটার পর পর সীমান্ত চৌকি আছে।’

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, ডিজি পর্যায়ের ৫০তম এই সম্মেলনে সীমান্ত হত্যা বন্ধসহ মাদক, অবৈধ অস্ত্র ও মানবপাচার রোধে সিদ্ধান্ত হয়। এ ছাড়া আট বন্দিকে দ্রুত ফিরিয়ে দিতে সম্মত হয়েছে ভারত। সীমান্তে যেকোনো ইস্যুতে মানবাধিকারের বিষয়টি প্রাধান্য দেওয়ার ব্যাপারে দুই দেশ সম্মত হয়েছে।

আরো জানানো হয়, যার যার দেশের প্রচলিত আইন অনুযায়ী মানবপাচারে ক্ষতিগ্রস্তদের যত দ্রুত সম্ভব উদ্ধার ও পুনর্বাসনের সুবিধা পেতে সহায়তা করার ব্যাপারে দুই দেশ একমত হয়েছে। উভয় পক্ষই আন্তর্জাতিক সীমানার কাঁটাতারের বেড়া কেটে অপসারণ করা, বেড়ার ক্ষয়ক্ষতি রোধে যৌথ প্রচেষ্টা অব্যাহত রাখা এবং নিয়মিত যৌথ টহল চালিয়ে যাবে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা