kalerkantho

বুধবার । ১৩ মাঘ ১৪২৭। ২৭ জানুয়ারি ২০২১। ১৩ জমাদিউস সানি ১৪৪২

তাইওয়ানের উপহার নেওয়ায় হতাশা জানিয়ে চীনের চিঠি

কূটনৈতিক প্রতিবেদক   

২ সেপ্টেম্বর, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



মন্ত্রী-সচিবদের উপস্থিতিতে তাইওয়ানের কাছ থেকে বাংলাদেশ উপহারসামগ্রী নেওয়ায় গভীর হতাশা প্রকাশ করেছে চীন। গত সোমবার চীন দূতাবাস পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়কে চিঠি পাঠিয়ে এই হতাশা ব্যক্ত করে। এদিকে চিঠি পাওয়ার পর নড়েচড়ে বসেছে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। তাইওয়ান ইস্যুটি চীনের কাছে অত্যন্ত স্পর্শকাতর। বাংলাদেশ এ বিষয়টির প্রতি সম্মান জানিয়ে আসছে। কিন্তু পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়কে না জানিয়ে সম্প্রতি একটি বেসরকারি অনুষ্ঠানে তিন মন্ত্রী ও তিন সচিবের উপস্থিতিতে তাইওয়ানের কাছ থেকে করোনা মোকাবেলায় উপহারসামগ্রী গ্রহণের বিষয়টি বাংলাদেশের জন্য বিব্রতকর পরিস্থিতির সৃষ্টি করেছে।

কূটনৈতিক সূত্রগুলো বলছে, চীন দূতাবাসের কর্মকর্তারা চিঠির পাশাপাশি ফোনেও এ সম্পর্কে জানতে চেয়েছেন। পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় আশ্বস্ত করেছে, বাংলাদেশ এখনো ‘এক চীন’ নীতিতে বিশ্বাসী। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক কূটনীতিক কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘কোথায় যাওয়া উচিত, কী বলা উচিত, সেই বোধ থাকা জরুরি।’ ‘রুলস অব বিজনেস’ অনুযায়ী, বিদেশিদের সঙ্গে যোগাযোগ কিংবা সম্পর্কের ক্ষেত্রে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়কে অবহিত করতে হয়। কারণ এসব বিষয় অন্য দেশের সঙ্গে সম্পর্কে প্রভাব ফেলতে পারে। কিন্তু অনেকেই তা মানতে চান না। তাইওয়ান ইস্যুতে এবারের ঘটনাটিও এর একটি উদাহরণ।

চীনে বাংলাদেশের সাবেক রাষ্ট্রদূত মুনশি ফয়েজ আহমেদ সাংবাদিকদের বলেন, চীনের সঙ্গে সম্পর্ক রাখার পূর্ব শর্ত হলো ‘এক চীন’ নীতিতে বিশ্বাস করা।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা