kalerkantho

রবিবার । ১২ আশ্বিন ১৪২৭ । ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০। ৯ সফর ১৪৪২

‘ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনকে সরকার হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহার করছে’

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৫ আগস্ট, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, ২০২০ সালের জানুয়ারি থেকে জুন পর্যন্ত ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে ১৫৩ জনের বিরুদ্ধে মামলা করে হয়রানি করা হয়েছে। মামলার অভিযোগগুলো বিশ্লেষণ করলে দেখা যায়, সরকারি দলের বিরুদ্ধে কথা বললে, রাজনৈতিক মত প্রকাশ করলে, সরকারের সমালোচনা করলে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা করা হচ্ছে। জনগণের কণ্ঠ রোধ করতে, ক্ষমতায় টিকে থাকার হাতিয়ার হিসেবে এই আইন ব্যবহার করছে সরকার।

গতকাল শুক্রবার দুপুরে রাজধানীর উত্তরার বাসা থেকে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে মির্জা ফখরুল এই কথা বলেন।

বিএনপির মহাসচিব বলেন, ‘সাংবাদিকসহ সবাই এটার (ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন) প্রচণ্ড সমালোচনা করার পরও ৯৪ শতাংশ মামলা হয়েছে এই বিতর্কিত ৫৭ ধারায়। দেশে চলমান মানবাধিকার লঙ্ঘন ও মতপ্রকাশের স্বাধীনতা হরণপ্রক্রিয়ারই একটা অংশ এই আইন। সরকার কর্তৃত্বপরায়ণ, স্বৈরাচারী, ফ্যাসিবাদী হয়ে উঠলে প্রথম আঘাত হানে সংবাদ প্রকাশ, মতপ্রকাশের স্বাধীনতা, বাক্স্বাধীনতা, সংবাদপত্রের স্বাধীনতার ওপর। সেটাই এই সরকার অত্যন্ত পরিকল্পিতভাবে, নিষ্ঠার সঙ্গে, সচেতনতার সঙ্গে করে চলেছে।’

তিনি আরো বলেন, ‘এই আইনের নগ্ন শিকার ৮৫ বছরের বেশি বয়স্ক সম্পাদক আসাদউদ্দিন, সাংবাদিক কাজল ফকির, নেত্র নিউজের সম্পাদক তাসনিম খলিল, ব্যবসায়ীসহ নিরীহ নাগরিকরা।’

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা