kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ৯ আশ্বিন ১৪২৭ । ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২০। ৬ সফর ১৪৪২

মাজারে হামলার পরিকল্পনা ছিল!

সিলেটে নব্য জেএমবির পাঁচ জঙ্গি গ্রেপ্তার

পল্টনে বোমা হামলায় জড়িত তাঁরা
গ্রেপ্তারকৃতদের দুজন শাবিপ্রবি শিক্ষার্থী

নিজস্ব প্রতিবেদক ও সিলেট অফিস   

১২ আগস্ট, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



সিলেটে নব্য জেএমবির পাঁচ জঙ্গি গ্রেপ্তার

নিষিদ্ধঘোষিত জঙ্গি সংগঠন নব্য জেএমবির সিলেট সেক্টর কমান্ডারসহ পাঁচজনকে গ্রেপ্তার করেছে ঢাকা মহানগর পুলিশের কাউন্টার টেররিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম (সিটিটিসি) ইউনিট।

গত সোমবার দিবাগত রাত ১টা থেকে ভোর পর্যন্ত সিটিটিসি এবং পুলিশ সদর দপ্তরের লফুল ইন্টারসেপশন সেলের (এলআইসি) একটি দল সিলেট নগরের বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে তাঁদের গ্রেপ্তার করে।

সংশ্লিষ্ট সূত্র মতে, এই জঙ্গিদের হজরত শাহজালাল (রহ.)-এর মাজারে হামলা চালানোর পরিকল্পনা ছিল। ঈদের আগে ঢাকার পল্টনে পুলিশের মোটরসাইকেলে বোমা রাখার ঘটনায়ও তাঁরা জড়িত ছিলেন।

গ্রেপ্তার পাঁচজনের মধ্যে দুজন শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (শাবিপ্রবি) শিক্ষার্থী বলে জানা গেছে। তবে বর্তমানে বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ থাকায় তাঁদের সম্পর্কে কোনো তথ্য নিশ্চিত হওয়া যায়নি।

সূত্র জানায়, গ্রেপ্তার নব্য জেএমবির সিলেট আঞ্চলিক কমান্ডারের নাম নাইমুজ্জামান। তিনি শাবিপ্রবির শিক্ষার্থী। প্রথমে তাঁকে গ্রেপ্তার করা হয়। পরে শহরতলির বিভিন্ন জায়গায় অভিযান চালিয়ে আরো চারজনকে গ্রেপ্তার করা হয়। তাঁদের মধ্যে সানাউল ইসলাম ওরফে সাদি নামের অন্যজনও শাবিপ্রবির শিক্ষার্থী। আর গ্রেপ্তার সায়েম লেখাপড়া করেন মদনমোহন কলেজে। বাকি দুজনের নাম-পরিচয় জানা যায়নি।

জানতে চাইলে সিটিটিসির উপকমিশনার সাইফুল ইসলাম বলেন, সিলেটের মিরাবাজার, টুকেরবাজার ও দক্ষিণ সুরমায় অভিযান চালিয়ে ওই পাঁচজনকে গ্রেপ্তার করা হয়। তাঁরা সবাই নব্য জেএমবির সদস্য। এই জঙ্গিদের সিলেটে বড় ধরনের হামলার পরিকল্পনা ছিল বলে প্রাথমিকভাবে জানা গেছে।

হজরত শাহজালাল (রহ.)-এর মাজারে হামলা চালানোর পরিকল্পনার ব্যাপারে জানতে চাইলে তিনি বলেন, এমন তথ্য তাঁরাও পেয়েছেন। সেই তথ্য যাচাই-বাছাই করে দেখা হচ্ছে।

সাইফুল ইসলাম জানান, গত ২৬ জুলাই রাতে ঢাকার পল্টনে বঙ্গবন্ধু স্কয়ারের পাশে মোটরসাইকেল রেখে দায়িত্ব পালন করছিলেন ট্রাফিক পুলিশের একজন সার্জেন্ট। রাত পৌনে ৯টার দিকে তিনি দেখেন, তাঁর মোটরসাইকেলে একটি পলিথিন ব্যাগ ঝুলছে। ভেতরে গ্রেনেডসদৃশ বস্তু দেখে তিনি দ্রুত পুলিশে খবর দেন। পরে ঢাকা মহানগর পুলিশের বোমা নিষ্ক্রিয়কারী দল গিয়ে বোমা নিষ্ক্রিয় করে। এর এক দিন আগে ২৫ জুলাই প্রায় একই সময়ে পল্টন মোড়ে কে বা কারা একটি বোমার বিস্ফোরণ ঘটায়। ওই ঘটনায় কেউ হতাহত হয়নি। ওই ঘটনায় পল্টন থানায় মামলা হয়েছে। ওই মামলার তদন্ত করতে গিয়ে সিলেটে নব্য জেএমবির পাঁচজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে বলে জানান সিটিটিসির উপকমিশনার।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা