kalerkantho

শুক্রবার । ৭ কার্তিক ১৪২৭। ২৩ অক্টোবর ২০২০। ৫ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

যোগাভ্যাস

কনশাস ব্রিদিং

এই যোগাসন অভ্যাস করলে শরীরের প্রতিটি কোষ উজ্জীবিত হয়ে ওঠে। বিশেষত মস্তিষ্কের কার্যকারিতা বাড়াতে সাহায্য করে

৭ আগস্ট, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



কনশাস ব্রিদিং

পদ্ধতি

মেরুদণ্ড সোজা করে মাথা ও ঘাড় একই সরলরেখায় রেখে মাটিতে পা দিয়ে চেয়ারে বসুন। হেলান দেবেন না। দুই হাত রাখুন কোলের ওপর আরামদায়কভাবে। ইচ্ছে হলে কোমরের পেছন দিকে একটা কুশন রাখতে পারেন। এবার চোখ বন্ধ করে সমস্ত শরীর রিল্যাক্স করুন। এভাবে কয়েক মিনিট স্থির হয়ে বসুন। তাড়াহুড়া করার দরকার নেই। সম্পূর্ণ পদ্ধতিটি করতে হবে ধীরে-সুস্থে।

· এবার ধীরে ধীরে শ্বাস নিতে নিতে শ্বাস-প্রশ্বাসের দিকে লক্ষ করুন। মনে রাখবেন মুখ দিয়ে নয় নাক দিয়েই শ্বাস নেবেন ও ছাড়বেন। এই অবস্থানে শ্বাস-প্রশ্বাস নিয়ন্ত্রণ করার দরকার নেই।

· কোনো ধরনের স্ট্রেস না নিয়ে ও টেনশন না করে স্বাভাবিক শ্বাস-প্রশ্বাসের গতিবিধির ওপর খেয়াল রাখতে হবে। মন স্থির রাখার চেষ্টা করুন। অবশ্য এত সহজে মন স্থির করা সম্ভব নয়। তবে এই নিয়ে চিন্তা না করে চেষ্টা করুন শুধু শ্বাস-প্রশ্বাসের গতিবিধি পর্যবেক্ষণ করার।

· এবারে মনে মনে শ্বাস-প্রশ্বাস গুনতে শুরু করুন। একবার শ্বাস টেনে মনে মনে এক গুনুন ও ছেড়ে এক গুনুন। এভাবে ১৫ টি শ্বাস গুনতে হবে।

· পনেরোবার শ্বাস নেওয়া ও ছাড়া গোনার পর চোখ বন্ধ করে চুপ করে বসে মানসিক শান্তি ও স্থিতি অনুভব করুন। কয়েক সেকেন্ড এই অনুভূতি কনশাস ব্রিদিং স্টেজ ওয়ানের এক গুরুত্বপূর্ণ ধাপ।

উপকারিতা

সচেতনভাবে শ্বাস-প্রশ্বাসের এই আসন অভ্যাস করলে অবচেতন ও সচেতনতার মধ্যে এক সেতুবন্ধন তৈরি হয়। আর এর ফলে আমাদের একদিকে মানসিক স্থিতি, ধৈর্য ও সৃষ্টিশীলতা বাড়ে—অন্যদিকে রাগ, দুঃখ, হিংসা, ভয় ও টেনশন মন থেকে চলে যায়।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা