kalerkantho

বুধবার । ৮ আশ্বিন ১৪২৭ । ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২০। ৫ সফর ১৪৪২

যোগাভ্যাস

ফিগার অব এইট

৩১ জুলাই, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ফিগার অব এইট

‘ফিগার অব এইট’ হলো দুই হাত একসঙ্গে জড়ো করে ইংরেজি আটের মতো ভঙ্গিতে ঘোরানো। দাঁড়িয়ে বা মাটিতে বসে ফিগার অব এইট আসন করা হয়। যাঁরা মাটিতে বসে বা দাঁড়িয়ে এই আসন করতে পারেন না, তাঁদের জন্য এই চেয়ার যোগ অভ্যাস করার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।

পদ্ধতি

♦ শিরদাঁড়া টান টান করে দুই পা মাটিতে রেখে সোজা হয়ে বসুন। আরামদায়কভাবে মাথা-ঘাড় সোজা করে বসতে হবে। দুই হাত রাখুন ঊরুর ওপর। চোখ বন্ধ করে মন একাগ্র করে বসুন।

♦ এই অবস্থানে থেকে চেয়ারের সামনের দিকে কিছুটা এগিয়ে আসুন। দুই হাঁটু যেন একসঙ্গে থাকে খেয়াল রাখবেন। কিন্তু টেনশন করবেন না। এটাই ফিগার অব এইট যোগ শুরুর অবস্থান।

♦ এবার দুই হাত সামনের দিকে এনে জড়ো করে আঙুল ইন্টারলক করুন, বেশ শক্ত করেই দুই হাতের আঙুল পরস্পর ধরে থাকতে হবে। কনুই সামান্য ভাঁজ থাকলে অসুবিধা নেই।

♦ এবার দুই হাত একসঙ্গে পাশে নিয়ে ইংরেজি আটের মতো করে ঘোরাতে হবে। মনে রাখবেন ঘোরানোর সময় নিতম্বসহ শরীরের উপরিভাগও সমানভাবে এক্সারসাইজে অংশ নেবে। অনেকটা জাঁতা ঘোরানোর মতো করে সম্পূর্ণ শরীর ঘুরবে।

♦ আসনটি অভ্যাস করার সময় যখন দুই হাত ওপরের দিকে উঠবে তখন শ্বাস নেবেন এবং দুই হাত নামানোর সময় শ্বাস ছাড়বেন—এভাবে অভ্যাস করতে পারেন। আবার সম্পূর্ণ আসনটি করার সময় স্বাভাবিকভাবেও শ্বাস-প্রশ্বাস নিতে পারেন। যেভাবে অভ্যাস করতে সুবিধা হয় সেভাবে করতে হবে।

♦ এভাবে পাঁচ রাউন্ড অভ্যাস করতে হবে। কিছুক্ষণ বিশ্রাম নিয়ে আবার পাঁচ রাউন্ড অভ্যাস করুন।

♦ আসন অভ্যাস শেষ হলে চোখ বন্ধ করে চেয়ারে বসে কিছুক্ষণ রিল্যাক্স করুন। শ্বাস-প্রশ্বাস স্বাভাবিক হওয়া পর্যন্ত বিশ্রাম নিন।

সতর্কতা

ঘাড়ে, কোমরে, পিঠে বা কাঁধে খুব ব্যথা থাকলে জোর করে আসনটি করতে যাবেন না।

উপকারিতা

এটি মূলত একটি অত্যন্ত নিরাপদ কার্ডিও এক্সারসাইজ। যাঁদের পায়ে ব্যথা ও অন্যান্য কারণে হাঁটা-চলা ও দীর্ঘক্ষণ দাঁড়িয়ে আসন করতে অসুবিধা হয় তাঁদের জন্য উপযোগী। নিয়মিত অভ্যাস করলে কোমর, কাঁধ, পেট ও নিতম্বের রক্ত চলাচল বাড়ে ও সচল থাকে, ব্যথা-বেদনার হাত থেকে রেহাই মেলে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা