kalerkantho

মঙ্গলবার । ২৭ শ্রাবণ ১৪২৭। ১১ আগস্ট ২০২০ । ২০ জিলহজ ১৪৪১

আপনার প্রশ্ন ডাক্তারের পরামর্শ

কালের কণ্ঠ’র স্বাস্থ্য সমস্যা বিষয়ক নিয়মিত আয়োজন আপনার প্রশ্ন, ডাক্তারের পরামর্শ। আপনাদের পাঠানো প্রশ্ন থেকে বাছাই করা কিছু প্রশ্নের পরামর্শ দিচ্ছেন অধ্যাপক ডা. মো. জুলহাস উদ্দিন বিভাগীয় প্রধান, মেডিসিন বিভাগ মার্কস মেডিক্যাল কলেজ

৩ জুলাই, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



আপনার প্রশ্ন ডাক্তারের পরামর্শ

প্রশ্ন ১ : আমার মেয়ের বয়স ১২। ওজন ৩৫ কেজি। উচ্চতা ৪ ফুট ৯ ইঞ্চি। গত চার দিন থেকে তার প্রচণ্ড জ্বর, পাতলা পায়খানা এবং মাঝেমধ্যে বমি হয়। জ্বর ১০৪ ডিগ্রি পর্যন্ত ওঠা-নামা করে। তবে বেশির ভাগ সময় জ্বর থাকে। গতকাল হাত-পা ঠাণ্ডা হয়ে যাচ্ছিল। চিকিৎসকের পরামর্শে নিউফ্লক্সিন, ফিলমেট, প্যারাসিটামল খাওয়াচ্ছি। জ্বর বেশি হলে সাপোজিটরি দিচ্ছি। শরীর বেশ কাহিল হয়ে পড়েছে। এটা কি করোনা, ডেঙ্গু না অন্য কিছুর লক্ষণ? এ অবস্থায় কোনো পরীক্ষা-নিরীক্ষার দরকার আছে কি না পরামর্শ দিলে উপকৃত হব।

রাজিব আহমেদ

জি-ব্লক, বসুন্ধরা আবাসিক এলাকা, ঢাকা

 

পরামর্শ : বর্তমান উপসর্গের সঙ্গে সর্দি-কাশি, গলা ব্যথা, কোমর ব্যথা, চোখ লাল হওয়া, শরীরে র‌্যাশ, শ্বাসকষ্ট ইত্যাদি না থাকলে কভিড-১৯ বা ডেঙ্গু না হওয়ার আশঙ্কাই বেশি। কোনো ধরনের খাওয়াদাওয়ার সমস্যা থেকেও এমনটি হতে পারে। আবার পেটের কোনো ইনফেকশনও হতে পারে। সে ক্ষেত্রে অ্যান্টিবায়োটিক সেবনে উপসর্গগুলো কমে যাওয়ার কথা। এখন ORS এবং ডাবের পানি বেশি করে খাওয়ান। সবচেয়ে ভালো হয় Stool অর্থাৎ মল পরীক্ষা করান। খেয়াল রাখবেন শরীর যাতে বেশি পানিশূন্য না হয়ে যায়।

 

প্রশ্ন ২ : আমার বয়স ৪৩ বছর। উচ্চতা ৫ ফুট। ওজন ৫৬ কেজি। গত দুই দিন আগে হঠাৎ পাতলা পায়খানা শুরু হয়। সারা দিনে ২০ থেকে ২২ বার বাথরুমে যেতে হয়। স্থানীয় চিকিৎসকের পরামর্শে সিপ্রোসিন ট্যাবলেট দুবেলা খাচ্ছি। পাশাপাশি ডাবের পানি, মালটার জুস, ওরস্যালাইন চলছে। এখন শরীর খুব দুর্বল, মাঝেমধ্যে মাথা ঘুরে পড়ে যাওয়ার মতো অবস্থা হয়। আমার অ্যাজমার সমস্যাও আছে। পরামর্শ দিলে বিশেষ বাধিত হব।

রেহেনা পারভীন

তেঁতুলিয়া, পঞ্চগড়

 

পরামর্শ : আপনার ভাইরাল ডায়রিয়া হওয়ার আশঙ্কা বেশি। স্যালাইন, জুস, ডাব ইত্যাদির পাশাপাশি Tab Azyth ৫০০mg

দুটি একসঙ্গে দুই দিন অর্থাৎ ২৪ ঘণ্টা পর পর চারটি ট্যাবলেট খান। সঙ্গে Tab Racitril একটা করে তিনবেলা দুই দিন খান। শরীরে পানিস্বল্পতার জন্যই দুর্বল লাগছে। বেশি করে লবণ পানি খাবেন। রক্তচাপের মাত্রার দিকে লক্ষ রাখবেন। ভালো হয় মল বা পায়খানা পরীক্ষা করাতে পারলে।

 

প্রশ্ন ৩ : আমার বয়স ৪৫। ওজন ৫৬ কেজি। উচ্চতা ৫ ফুট ৩ ইঞ্চি। বেশ কিছুদিন থেকে লক্ষ করছি, আমার শরীর প্রচুর ঘামছে। বিশেষ করে রান্নাঘরে কাজ করতে গেলে তো কোনো কথাই নেই। এমনিতেই সারা দিনে প্রচুর ঘামে আমার গায়ের জামা-কাপড় ভিজে যায়। এ সমস্যার জন্য আমার কী করণীয়?

জরিনা বেগম

কালিতলা, দিনাজপুর

 

পরামর্শ : শরীর ঘামা স্বাভাবিক কারণেও হতে পারে। তবে বেশি ঘামাটা যদি ছোটবেলা থেকেই হয়ে থাকে এবং শরীরের ওজনের তারতম্য যদি বেশি না হয়ে থাকে, তবে চিন্তার কোনো কারণ নেই। শুধু মাঝেমধ্যে স্যালাইন পানি খাবেন। কারণ বেশি ঘেমে গেলে শরীর থেকে দরকারি পানি ও লবণ বের হয়ে যায়। আপনি কখনো থাইরয়েড গ্ল্যান্ডের পরীক্ষা করে না থাকলে রক্তের FT4 এবং TSH পরীক্ষা করান। মাসিক বন্ধ হয়ে গেলে Tab Unilon ২.৫mg একটা করে ৬ মাস থেকে এক বছর খান। এ ছাড়া ডায়াবেটিসের পরীক্ষাও করাবেন।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা