kalerkantho

শুক্রবার । ২৩ শ্রাবণ ১৪২৭। ৭ আগস্ট  ২০২০। ১৬ জিলহজ ১৪৪১

২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ৪১

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২ জুলাই, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ৪১

আগের দিন দেশে করোনায় মৃত্যু হঠাৎ করেই একলাফে ৬৪-তে উঠে গিয়েছিল। গতকাল বুধবার তা আগের অবস্থায় ফিরে এসেছে। শেষ ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু নেমে এসেছে ৪১ জনে।

কভিড-১৯ পরিস্থিতি নিয়ে সরকারের নিয়মিত বুলেটিনে গতকাল স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় নমুনা সংগ্রহ হয়েছে ১৬ হাজার ৮৯৮টি এবং আগের জমানো নমুনাসহ পরীক্ষা হয়েছে ১৭ হাজার ৮৭৫টি। এ পর্যন্ত মোট পরীক্ষা হয়েছে সাত লাখ ৮৪ হাজার ৩৩৫টি। গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন শনাক্ত তিন হাজার ৭৭৫ জন (শনাক্তের হার ২১.১২ শতাংশ), নতুন রোগীসহ এ পর্যন্ত মোট শনাক্ত এক লাখ ৪৯ হাজার ২৫৮ জন (শনাক্তের হার ১৯.০৩ শতাংশ)। ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছে দুই হাজার ৪৮৪ জন। মোট সুস্থ হয়েছে ৬২ হাজার ১০৮ জন। শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৪১.৬১ শতাংশ।

মৃত্যুর তথ্যে জানানো হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু হয়েছে ৪১ জনের। সব মিলিয়ে এ পর্যন্ত মৃত্যু এক হাজার ৮৮৮ জনের। শনাক্ত বিবেচনায় মৃত্যুর হার ১.২৬  শতাংশ। মৃতদের মধ্যে ৩৮ জন পুরুষ এবং তিনজন নারী। বয়স বিভাজনে ৩১-৪০ বছরের মধ্যে চারজন, ৪১-৫০ বছরের মধ্যে পাঁচজন, ৫১-৬০ বছরের মধ্যে ১২ জন, ৬১-৭০ বছরের মধ্যে ১১ জন, ৭১-৮০ বছরের মধ্যে সাতজন, ৮১-৯০ বছরের মধ্যে একজন এবং ১০০ বছরের একজন। মৃতদের মধ্যে ঢাকা বিভাগে ১৩, চট্টগ্রাম বিভাগে ১৭, খুলনা বিভাগে ৫, বরিশাল বিভাগে ৩ এবং সিলেট বিভাগে দুজন। হাসপাতালে মারা গেছে ২৩ জন এবং বাড়িতে ১৮ জন।

বুলেটিনে জানানো হয়, বয়স বিবেচনায় গতকাল পর্যন্ত করোনায় মারা গেছেন ষাটোর্ধ্ব বয়সের ৪৩.২৭, ৫১-৬০ বছরের মধ্যে ২৮.৮১, ৪১-৫০ বছরের মধ্যে ১৪.৯৯, ৩১-৪০ বছরের মধ্যে ৭.৬২, ২১-৩০ বছরের মধ্যে ৩.৪৯, ১১-২০ বছরের মধ্যে ১.১৬ এবং ০-১০ বছরের মধ্যে ০.৬৩ শতাংশ।

হাসপাতালের তথ্য তুলে ধরে জানানো হয়, ঢাকা মহানগরীতে কভিড রোগীদের জন্য সাধারণ বেড ছয় হাজার ৭৫টি এবং আইসিইউ বেড আছে ১৩৯টি। সব বিভাগ মিলে সাধারণ বেড ১৪ হাজার ৭৪৮টি এবং আইসিইউ বেড আছে ৩৮১টি। এসব হাসপাতালে মোট অক্সিজেন সিলিন্ডার আছে ১১ হাজার ১৪৪টি। হাই-ফ্লো ন্যাজাল ক্যানুলা আছে ২০৪টি এবং অক্সিজেন কনসেনট্রেটরের সংখ্যা ৯৮টি। সারা দেশে সাধারণ বেডে ভর্তি রোগী চার হাজার ৮৭৩ জন এবং আইসিইউ বেডে ভর্তি রোগী ২১৬ জন। সারা দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় ভর্তি রোগী ৫৩৮ জন এবং ছাড়প্রাপ্ত রোগী ৪৯৭ জন।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা