kalerkantho

বুধবার । ৩১ আষাঢ় ১৪২৭। ১৫ জুলাই ২০২০। ২৩ জিলকদ ১৪৪১

সনদের দাবি

১৩ হাজার শিক্ষানবিশ আইনজীবী আন্দোলনে

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১ জুলাই, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বাংলাদেশ বার কাউন্সিলের ২০১৭ ও ২০২০ সালের পরীক্ষায় (প্রিলিমিনারি) উত্তীর্ণদের লিখিত ও মৌখিক পরীক্ষা ছাড়াই সনদ দেওয়ার দাবি জানিয়েছে প্রায় ১৩ হাজার শিক্ষানবিশ আইনজীবী। দাবি আদায়ে গতকাল জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে মানববন্ধন করে আন্দোলনকারীদের একাংশ। আরেকটি অংশ সংবাদ সম্মেলন করে ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে।

আন্দোলনকারী আইনজীবীরা জানিয়েছে, অবিলম্বে দাবি পূরণ না হলে ৭ জুলাই থেকে বার কাউন্সিলের সামনে তারা অবস্থান কর্মসূচি পালন করবে।

প্রেস ক্লাবের সামনে মানববন্ধন হয় ‘এমসিকিউ পরীক্ষায় উত্তীর্ণ আইন শিক্ষানবিশবৃন্দ’ ব্যানারে।  অন্যদিকে সংবাদ সম্মেলন ডাকা হয় ‘এমসিকিউ পরীক্ষায় উত্তীর্ণ সকল শিক্ষানবিশ আইনজীবী’ ব্যানারে। সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য দেন সংগঠনটির কেন্দ্রীয় আহ্বায়ক সুমনা আক্তার লিলি, সদস্যসচিব আইনুল ইসলাম বিশাল, ব্যারিস্টার মঞ্জুর মোর্শেদ, আজিজুর রহমান, মো. আবু ইউসুফ, মো. রায়হান আলী, ব্যারিস্টার মেহেদী হাসান প্রমুখ।

বক্তারা বলেন, ২০১৭ সালের ৮ ফেব্রুয়ারি সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগের এক রায়ে প্রতিবছর একবার করে আইনজীবী তালিকাভুক্তকরণের কাজ সম্পন্ন করার জন্য বার কাউন্সিলকে নির্দেশ দেওয়া হয়। সারা দেশের আইনজীবীদের নিয়ন্ত্রণকারী এই প্রতিষ্ঠানটি আপিল বিভাগের এই রায় কার্যকর করেনি। তাঁরা বলেন, বার কাউন্সিলের আইনজীবী তালিকাভুক্তকরণ কমিটি (এনরোলমেন্ট কমিটি) আপিল বিভাগ ও হাইকোর্ট বিভাগের বিচারপতি, অ্যাটর্নি জেনারেল ও সিনিয়র আইনজীবীদের সমন্বয়ে গঠিত। তারাই আপিল বিভাগের রায় না মানছে না।

বক্তারা বলেন, প্রতিবছর পরীক্ষা হওয়ার কথা থাকলেও শুধু ২০১৭ সালের ২১ জুলাই এবং ২০২০ সালের ২৮ ফেব্রুয়ারি প্রিলিমিনারি পরীক্ষা হয়েছে। এই পরীক্ষায় উত্তীর্ণদের এখনো লিখিত পরীক্ষা নেওয়া হয়নি। দেশে এখন করনোভাইরাসের মহামারি চলছে। এর মধ্যে লিখিত পরীক্ষা নেওয়া হয়তো সম্ভব নয়। পরীক্ষা নেওয়ার পরিবেশ না হলে এই ১২ হাজার ৮৭৮ শিক্ষার্থীকে আইনজীবী হিসেবে সনদ দিয়ে গেজেট প্রকাশ করতে হবে।

জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে অনুষ্ঠিত মানববন্ধনে বক্তব্য দেন প্রধান সমন্বয়ক এ কে মাহমুদ, রবিউল হোসাইন রবি, মোশাররফ পাভেল, মাহবুবুর রহমান, এস এম কাইয়ুম শুভ প্রমুখ।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা