kalerkantho

মঙ্গলবার  । ২০ শ্রাবণ ১৪২৭। ৪ আগস্ট  ২০২০। ১৩ জিলহজ ১৪৪১

পরিবেশ দিবস উপলক্ষে বিআইপির সংলাপ

প্রকৃতিকে গুরুত্ব দিয়ে পরিকল্পনা প্রণয়নের দাবি

নিজস্ব প্রতিবেদক   

৭ জুন, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



টেকসই পরিবেশ বিনির্মাণে প্রাকৃতিক বাস্তুসংস্থান এবং জীববৈচিত্র্যকে গুরুত্ব দিয়ে শহর, গ্রাম, হাওর ও বনাঞ্চলের স্থায়িত্বশীল পরিকল্পনা প্রয়োজন বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা। একই সঙ্গে সারা দেশের জন্য জাতীয় ভৌত পরিকল্পনার মাধ্যমে দেশের কৃষিজমি, সংরক্ষিত বনাঞ্চল সংরক্ষণের পাশাপাশি অর্থনৈতিক অঞ্চল ও শিল্পাঞ্চল সুনির্দিষ্ট করার মাধ্যমে টেকসই পরিবেশ নিশ্চিত করে উন্নত বাংলাদেশ গঠনে গুরুত্বারোপ করেন তাঁরা। গত শুক্রবার রাতে বিশ্ব পরিবেশ দিবস উপলক্ষে বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব প্ল্যানার্স (বিআইপি) আয়োজিত ‘পরিবেশ ও পরিকল্পনা’ শীর্ষক এক সংলাপে পরিকল্পনাবিদ ও পরিবেশ বিশেষজ্ঞরা এমন অভিমত প্রদান করেন। বিআইপির সাধারণ সম্পাদক পরিকল্পনাবিদ ড. আদিল মুহাম্মদ খানের সঞ্চালনায় অনলাইনে সংলাপটি অনুষ্ঠিত হয়।

সংলাপে অংশগ্রহণকারীরা বলেন, বাংলাদেশের মতো অধিক জনসংখ্যার দেশে পরিবেশসংক্রান্ত বিভিন্ন সমস্যার তদারকি করা সীমিত জনবল নিয়ে পরিবেশ অধিদপ্তরের জন্য অত্যন্ত দুরূহ। এর পরও সমাজ ও প্রতিষ্ঠানের সব ক্ষেত্রে নৈতিকতার চর্চা প্রতিষ্ঠিত হলে টেকসই পরিবেশ নিশ্চিত করতে পারবে পরিবেশ অধিদপ্তর। বাংলাদেশে বিদ্যমান পরিবেশদূষণের পেছনে প্রয়োজনীয় আইনি কাঠামো, আইনের বাস্তবায়ন ও সঠিক পরিকল্পনার অভাব রয়েছে। প্রকৃত অর্থে গণতন্ত্রের অনুপস্থিতি, প্রাতিষ্ঠানিক জবাবদিহির অভাব এবং জনমতের গুরুত্বকে প্রাধান্য না দিয়ে ভৌত পরিকল্পনা প্রণয়নের কারণে দেশের পরিবেশ ও জীববৈচিত্র্য অরক্ষিত হয়ে পড়েছে। পরিবেশকে স্থায়িত্বশীল করতে শহর, গ্রাম ও বনাঞ্চল পরিকল্পনায় জীববৈচিত্র্য সংরক্ষণে গুরুত্ব দিতে হবে।

মন্তব্য