kalerkantho

বুধবার । ৩১ আষাঢ় ১৪২৭। ১৫ জুলাই ২০২০। ২৩ জিলকদ ১৪৪১

সংক্ষিপ্ত

আ. লীগের দুই পক্ষে সংঘর্ষে গুলিবিদ্ধসহ আহত ১৫

সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি   

৭ জুন, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



সিরাজগঞ্জের বেলকুচিতে সালিস বৈঠককে কেন্দ্র করে আওয়ামী লীগের দুই পক্ষের সংঘর্ষে উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক কামাল আহমেদ গুলিবিদ্ধসহ উভয় পক্ষের ১৫ জন আহত হয়েছেন। এ সময় দুই পক্ষের ১০টি মোটরসাইকেল ভাঙচুর করা হয়। পরে পুলিশ ও সাবেক মন্ত্রী জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুল লতিফ বিশ্বাস পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনেন। গতকাল শনিবার বিকেলে এ ঘটনা ঘটে। গুরুতর আহত কামাল আহমেদকে (৩৩) সিরাজগঞ্জ শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। অন্যদের ভর্তি করা হয়েছে বিভিন্ন হাসপাতালে। পুলিশ জানায়, বেলকুচির ভাঙ্গাবাড়ি ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান জোকনালা গ্রামের মৃত আব্দুর রাজ্জাকের স্ত্রী শিক্ষক উম্মে জহুরার একটি পরিত্যক্ত পুকুর পরিষ্কার করা নিয়ে প্রতিবেশী রফিকুল ইসলামের (রফিক) দ্বন্দ্ব হয়। বিষয়টি নিয়ে গতকাল বিকেলে সালিস বৈঠক ডাকা হয় জোকনালা বাজারে। ঘণ্টাখানেক আগেই রফিকের পক্ষে উপজেলা যুবলীগের আহ্বায়ক সাজ্জাদুল হক রেজার নেতৃত্বে শখানেক লোক হাজির হয়। সালিসকাজ বিলম্বিত হওয়ায় তারা প্রায় অর্ধশত মোটরসাইকেল নিয়ে সগুনা চৌরাস্তা মোড়ে পৌঁছলে জহুরার পক্ষে আত্মীয় দৌলতপুর ইউপির চেয়ারম্যান আওয়ামী লীগ নেতা আশিকুর রহমান লাজুক বিশ্বাসের নেতৃত্বে শতাধিক লোক মোটরসাইকেল নিয়ে মুখোমুখি হয়। উভয় পক্ষের লোকজন কথা-কাটাকাটির একপর্যায়ে সংঘর্ষে জড়ায়। এ সময় লাজুক পক্ষের কামাল আহমেদ গুলিবিদ্ধ ও পেটে ক্ষুরাঘাতে বেশ কয়েকজন আহত হন। আর রেজা পক্ষে যুবলীগের কর্মী নাজমুলসহ কয়েকজন আহত হন।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা