kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ২৫ আষাঢ় ১৪২৭। ৯ জুলাই ২০২০। ১৭ জিলকদ ১৪৪১

এইচআরএফবির বিবৃতি

নাগরিকের বাক্ ও গণমাধ্যমের স্বাধীনতা নিশ্চিতের আহ্বান

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১০ মে, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



নাগরিকের বাক্ ও গণমাধ্যমের স্বাধীনতা নিশ্চিতের আহ্বান

নাগরিকের বাক্ স্বাধীনতা ও তথ্য পাওয়ার অধিকার এবং গণমাধ্যমের স্বাধীনতা নিশ্চিত করার আহ্বান হিউম্যান রাইটস ফোরাম বাংলাদেশের (এইচআরএফবি)। গতকাল শনিবার সংবাদমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে এ আহ্বান জানানো হয়।

এইচআরএফবির বিবৃতিতে বলা হয়, ‘যেকোনো গণতান্ত্রিক ও মানবাধিকারভিত্তিক রাষ্ট্রের অন্যতম প্রধান বৈশিষ্ট্য জনগণের মত প্রকাশ ও গণমাধ্যমের স্বাধীনতা। সমাজের প্রতিটি স্তরে সুশাসন, মানবাধিকার ও জবাবদিহি নিশ্চিতকরণে এ দুটির কোনো বিকল্প নেই। সংবিধানে নাগরিকদের মুক্তচিন্তা, বিবেকের স্বাধীনতা ও বাক্ স্বাধীনতা মৌলিক অধিকার হিসেবে স্বীকৃত। সরকারের দায়িত্ব এ স্বাধীনতার চর্চা নিশ্চিত করার জন্য অনুকূল পরিবেশ তৈরি করা, জনগণের তথ্য পাওয়ার অধিকার সুরক্ষিত করা এবং কোথাও এর ব্যত্যয় ঘটলে তাত্ক্ষণিকভাবে যথাযথ মানদণ্ড বজায় রেখে ব্যবস্থা গ্রহণ করা। বিশেষত কোনো দুর্যোগপূর্ণ পরিস্থিতিতে মত প্রকাশের অধিকার ও গণমাধ্যমের স্বাধীনতা সরকারের সহায়ক শক্তি হিসেবে কাজ করে। অথচ আমরা অত্যন্ত উদ্বেগ আর আতঙ্কের সঙ্গে লক্ষ করছি, করোনার এ সংকটকালেও আমাদের দেশে নানাভাবে নাগরিকের মত প্রকাশের অধিকার ও গণমাধ্যমের স্বাধীনতা আঘাতপ্রাপ্ত হচ্ছে। গণমাধ্যমকর্মীদের নানাভাবে হয়রানি, হুমকি বা আক্রমণ করা হচ্ছে, সরকার বা সরকারসংশ্লিষ্ট ব্যক্তির সমালোচনা করার কারণে নাগরিকদের বিরুদ্ধে মামলা হচ্ছে এবং আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী অতি দ্রুত তাদের গ্রেপ্তার করছে।’

বিবৃতিতে বলা হয়, ‘জাতীয় দৈনিকগুলো ও নিজস্ব উৎস থেকে সংগৃহীত আইন ও সালিশ কেন্দ্রের (আসক) তথ্যানুযায়ী, এ বছরের প্রথম চার মাসে ৮৫ জন সাংবাদিক নানাভাবে হয়রানি বা আক্রমণের শিকার হয়েছেন, কেবল এপ্রিল মাসেই ৩৪ জন সাংবাদিক হয়রানির শিকার হয়েছেন। অন্যদিকে বহুল বিতর্কিত ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন উদ্বেগজনকভাবে ব্যবহার করা হচ্ছে নাগরিক ও গণমাধ্যমকর্মীদের বিরুদ্ধে। আসকের তথ্য থেকে আরো জানা যায়, ১ এপ্রিল থেকে ৬ মে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের আওতায় ৪১ জনের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে, যার মধ্যে ২০ জন সাংবাদিক, একজন ব্লগার, একজন কার্টুনিস্ট এবং অন্যান্য ১৯ জন।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা