kalerkantho

মঙ্গলবার । ২৩ আষাঢ় ১৪২৭। ৭ জুলাই ২০২০। ১৫ জিলকদ  ১৪৪১

টেকনাফে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ দুই রোহিঙ্গা ইয়াবা কারবারি নিহত

বিশেষ প্রতিনিধি, কক্সবাজার ও টেকনাফ প্রতিনিধি   

১০ মে, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



কক্সবাজারের টেকনাফে পুলিশের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে নুর মোহাম্মদ ও মো. রফিক নামে দুজন রোহিঙ্গা নিহত হয়েছেন। পুলিশের দাবি, নিহত দুজনই ইয়াবা পাচারকারী এবং ইয়াবা পাচারের সময়  বন্দুকযুদ্ধে গুলিবিদ্ধ হয়ে মারা যান।

গতকাল ভোরে উপজেলার হোয়াইক্যং ইউনিয়নের উলুবনিয়া সীমান্ত এলাকায় বন্দুকযুদ্ধের ঘটনাটি ঘটেছে। ঘটনাস্থল থেকে এক লাখ ৫৮ হাজার পিস ইয়াবা উদ্ধার করেছে পুলিশ।

টেকনাফ মডেল থানা পুলিশের ওসি প্রদীপ কুমার দাশ কালের কণ্ঠকে বলেন, উলুবনিয়া সীমান্ত এলাকায় একদল রোহিঙ্গার ইয়াবা পাচারের খবর পেয়ে পুলিশের একটি টিম সেখানে অভিযান পরিচালনা করে। এ সময় রোহিঙ্গা ইয়াবা পাচারকারীরা পুলিশকে দেখামাত্র অতর্কিতে গুলি ছোড়েন। পরে পুলিশও আত্মরক্ষার্থে পাল্টাগুলি চালালে বেশ কয়েকজন অস্ত্রধারী ইয়াবা পাচারকারী পালিয়ে লোকালয়ে ঢুকে যান। গুলির শব্দ থামলে পুলিশ ঘটনাস্থল তল্লাশি করে দুই ব্যক্তিকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাঁদের মৃত ঘোষণা করেন।

স্থানীয় বাসিন্দারা জানান, পালিয়ে যাওয়া অস্ত্রধারী ব্যক্তিরাও রোহিঙ্গা। তাঁরা উখিয়া উপজেলার কুতুপালং, থাইংখালী ও বালুখালী ক্যাম্পের বাসিন্দা হতে পারেন। দীর্ঘদিন টেকনাফ রোহিঙ্গা ক্যাম্পভিত্তিক ইয়াবা কারবার পরিচালনা করার পাশাপাশি রোহিঙ্গারা এখন অনেকটা উখিয়া ক্যাম্পভিত্তিক কারবার পরিচালনা করছেন।

এ প্রসঙ্গে ওসি প্রদীপ কুমার দাশ বলেন, ‘টেকনাফে পুলিশের অব্যাহত অভিযানে ইয়াবা পাচারকারী ও রোহিঙ্গা সন্ত্রাসীরা এখন উখিয়াভিত্তিক তাদের তৎপরতা চালাতে পারে। তবে ইয়াবা কারবারি ও সন্ত্রাসীরা যে ক্যাম্পের হোক না কেন আমরা অভিযান পরিচালনা করে তাদের আইনের আওতায় আনতে প্রস্তুত রয়েছি।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা