kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ২১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭ । ৪ জুন ২০২০। ১১ শাওয়াল ১৪৪১

সংবাদপত্রের দুই হাজার হকারকে খাদ্য সহায়তা দিল বসুন্ধরা

নিজস্ব প্রতিবেদক   

৯ এপ্রিল, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ৪ মিনিটে



সংবাদপত্রের দুই হাজার হকারকে খাদ্য সহায়তা দিল বসুন্ধরা

করোনা প্রাদুর্ভাবের মধ্যে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে কাজ করা সংবাদপত্রের দুই হাজার হকারের পাশে দাঁড়াল দেশের শীর্ষস্থানীয় শিল্পগোষ্ঠী বসুন্ধরা গ্রুপ। গতকাল দুপুরে রাজধানীর ইন্টারন্যাশনাল কনভেনশন সিটি বসুন্ধরায়। ছবি : কালের কণ্ঠ

করোনাভাইরাসের ভয়াবহ পরিস্থিতির মধ্যেও যথাসময়ে সঠিক সংবাদটি মানুষের কাছে পৌঁছে দিচ্ছে সংবাদপত্র। আর জীবনের ঝুঁকি নিয়ে সেই সংবাদপত্র মানুষের দ্বারে দ্বারে পৌঁছে দিচ্ছে এক বিশাল কর্মী বাহিনী, যাদের আমরা হকার বলি। দেশে চলমান করোনা দুর্যোগে সেই হকারদের প্রতি সহযোগিতার হাত বাড়িয়েছে দেশের শীর্ষস্থানীয় শিল্পগোষ্ঠী বসুন্ধরা গ্রুপ। সংবাদপত্র বিতরণের সঙ্গে জড়িত এমন দুই হাজার হকার পরিবারকে খাদ্য সহায়তা দিয়েছে এই শিল্পগোষ্ঠী।

গতকাল বুধবার দুপুরে রাজধানীর ইন্টারন্যাশনাল কনভেনশন সিটি বসুন্ধরায় (আইসিসিবি) ঢাকা সংবাদপত্র হকার্স সমিতি, ঢাকা সংবাদপত্র হকার্স কল্যাণ সমিতি, বাংলাদেশ সংবাদপত্র পরিবহন মালিক সমিতি, ঢাকা পত্রপত্রিকা বিতরণকারী সমিতি ও ঢাকা বিট সমিতির নেতাদের উপস্থিতিতে এসব খাদ্য সহায়তা পাঠানো হয় সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিদের কাছে। সহায়তা হিসেবে চাল, ডাল, তেল ও আটা দেওয়া হয়।

এ সময় বাংলাদেশ প্রতিদিন সম্পাদক এবং নিউজটোয়েন্টিফোর ও রেডিও ক্যাপিটালের সিইও নঈম নিজাম ও কালের কণ্ঠ’র ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক মোস্তফা কামাল উপস্থিত ছিলেন। অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ঢাকা সংবাদপত্র হকার্স বহুমুখী সমবায় সমিতি লিমিটেডের সভাপতি মোস্তফা কামাল ও সাধারণ সম্পাদক আব্দুল মান্নান, সংবাদপত্র হকার্স কল্যাণ বহুমুখী সমবায় সমিতি লিমিটেডের সাধারণ সম্পাদক মো. শাহাব উদ্দিন, সিটি সুপারভাইজর মো. রুস্তম আলী, সুপারভাইজর আমীর খসরু, বাংলাদেশ সংবাদপত্র পরিবহন মালিক সমিতির সাংগঠনিক সম্পাদক শেখ মুক্তার হোসেন। সংবাদপত্র বিতরণকারী শ্রমিক কর্মচারী ইউনিয়নের প্রধান উপদেষ্টা রিয়াজ আহম্মেদ মামুন প্রমুখ।

বাংলাদেশ প্রতিদিন সম্পাদক, নিউজটোয়েন্টিফোর ও রেডিও ক্যাপিটালের সিইও নঈম নিজাম বলেন, ‘বর্তমান করোনা পরিস্থিতির মধ্যেও নানা রকম গুজব চলছে। এর মধ্যেই আমরা সঠিক সংবাদটি পত্রিকার পাতায় তুলে ধরছি। সংবাদপত্রের হকাররা সেই পত্রিকা জীবনের ঝুঁকি নিয়ে মানুষের ঘরে ঘরে পৌঁছে দিচ্ছেন। তাই এই দুর্দিনে তাঁদের খবর আমাদের রাখতে হবে। বসুন্ধরা গ্রুপ সেই প্রক্রিয়া ধরেই কাজ করে যাচ্ছে।’

কালের কণ্ঠ’র ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক মোস্তফা কামাল বলেন, “দেশ এখন কঠিন সময় পাড়ি দিচ্ছে। এর মধ্যেও আমরা পত্রিকা বের করছি। জরুরি সেবা হিসেবে চিকিৎসকরা চিকিৎসা কাজে অতন্দ্র প্রহরীর মতো কাজ করছেন, তেমনি সাংবাদিকরাও ‘ঘরে থাকা’ মানুষদের কাছে সঠিক সংবাদটি পৌঁছে দেওয়ার কাজ করছেন। হকাররা ভয়কে পরোয়া না করে সেই পত্রিকা বাড়ি বাড়ি পৌঁছে দিচ্ছেন—এই মানুষগুলোর জন্য ইস্ট ওয়েস্ট মিডিয়া গ্রুপের উদ্যোগে বসুন্ধরা গ্রুপের পক্ষ থেকে এই খাদ্য সহায়তা।” আর এর জন্য তিনি বসুন্ধরা গ্রুপের কাছে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।

অনুষ্ঠানে ঢাকা সংবাদপত্র হকার্স বহুমুখী সমবায় সমিতি লিমিটেডের সভাপতি মোস্তফা কামাল বলেন, ‘এ উদ্যোগকে আমরা স্বাগত জানাই।’ একই সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল মান্নান বলেন, ‘আমরা এই সংকটে সংবাদ শিল্প খাতে আমাদের দায়িত্ব পালন করছি। আজ বসুন্ধরা গ্রুপের পক্ষ থেকে এই সহায়তা কর্মীদের উৎসাহিত করবে।’

সংবাদপত্র হকার্স কল্যাণ বহুমুখী সমবায় সমিতির সাধারণ সম্পাদক মো. শাহাব উদ্দিন এ উদ্যোগের জন্য বসুন্ধরা গ্রুপকে ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন, ‘বাংলাদেশে অনেক বড় বড় ইন্ডাস্ট্রি রয়েছে, কিন্তু কোনো ইন্ডাস্ট্রি এভাবে ত্রাণসামগ্রী দেয়নি, বসুন্ধরা গ্রুপ যেভাবে ত্রাণসামগ্রী বিতরণ করে যাচ্ছে সেটা সুন্দর উদাহরণ। অন্যান্য  ইন্ডাস্ট্রির মালিকরা যদি এভাবে ত্রাণ বিতরণে এগিয়ে আসেন তাহলে দেশের এ সময়ে গরিব ও অসহায় মানুষদের খাবারের অভাবে কষ্ট করতে হতো না।’ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন কালের কণ্ঠ’র জিএম অ্যান্ড হেড অব ডিপার্টমেন্ট (সার্কুলেশন) মো. বিল্লাল হোসেন (মন্টু), ডেইলি সান-এর ম্যানেজার (সার্কুলেশন) মনির উদ্দিন ফিরোজ, বাংলাদেশ প্রতিদিন-এর সিনিয়র ডেপুটি ম্যানেজার (সার্কুলেশন) মো. আমীর হোসেনসহ ইস্ট ওয়েস্ট মিডিয়া গ্রুপ লিমিটেডের সার্কুলেশন বিভাগের কর্মকর্তারা।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা