kalerkantho

সোমবার । ১৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭ । ১  জুন ২০২০। ৮ শাওয়াল ১৪৪১

কালের কণ্ঠে সংবাদ

করোনায় কর্মহীন সেই দর্জির পাশে ইউএনও

ধুনট (বগুড়া) প্রতিনিধি   

৩১ মার্চ, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বগুড়ার ধুনটে করোনাভাইরাসের প্রভাবে কর্মহীন হয়ে পড়া দর্জি ওয়াদুদ আলীর খাবারের ব্যবস্থা করে দিলেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) রাজিয়া সুলতানা। গতকাল সোমবার দুপুরে উপজেলা পরিষদ চত্বরে ওয়াদুদের হাতে খাদ্য ও অন্যান্য পণ্যের বস্তা তুলে দেন ইউএনও।

গতকাল কালের কণ্ঠে ‘করোনায় কর্মহীনদের দুর্বিষহ জীবন’ শিরোনামে সচিত্র প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়। এর পরিপ্রেক্ষিতে ওয়াদুদ আলীকে সরকারি সহায়তা দেওয়া হলো। খাবারের তালিকায় আছে আট কেজি চাল, তিন কেজি আলু, এক কেজি মসুর ডাল, এক কেজি লবণ, এক লিটার সয়াবিন তেল। একই সঙ্গে তাঁকে এক কেজি ব্লিচিং পাউডার, একটি হাত ধোয়ার সাবান ও একটি মাস্ক দেওয়া হয়েছে। এ সময় উপস্থিত ছিলেন বগুড়া সরকারি আজিজুুল হক কলেজের সহকারী অধ্যাপক মতিয়ার রহমান সাজু, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা আব্দুল আলিম, উপজেলা উপসহকারী জনস্বাস্থ্য প্রকৌশলী রোজিনা আকতার সুমি, ধুনট প্রেস ক্লাবের সভাপতি রফিকুল আলম প্রমুখ।

ইউএনও বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা মোতাবেক আমি কর্মহীন দরিদ্র ব্যক্তিদের ঘরে ঘরে গিয়ে খাবারের প্যাকেট পৌঁছে দিচ্ছি। যাতে করে কাউকে ঘর থেকে বের হতে না হয়।’

করোনাভাইরাস সংক্রমণ পরিস্থিতিতে আনুষ্ঠানিকভাবে অবরুদ্ধ বা লকডাউন করা না হলেও ২৬শে মার্চ থেকে কার্যত ধুনট শহর অবরুদ্ধ হয়ে আছে। ফার্মেসি আর নিত্যপণ্যের দোকান ছাড়া সব কিছু বন্ধ। মানুষকে ঘরে রাখতে চলছে নানা কার্যক্রম। ওয়াদুদ আলী পেশায় দর্জি। প্রতিদিন ফুটপাতে বসেন। তৈরি করেন নিম্ন আয়ের মানুষের পোশাক। সেই আয় দিয়ে চলে তাঁর সংসার। কিন্তু করোনাভাইরাসের প্রভাবে কর্মহীন হয়ে পড়েছেন তিনি। জীবনের ঝুঁকি নিয়ে ফুটপাতে বসেও মিলছে না কাজ।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা