kalerkantho

শনিবার । ২১ চৈত্র ১৪২৬। ৪ এপ্রিল ২০২০। ৯ শাবান ১৪৪১

উপসচিবের মৃত্যু সংবাদটি মিলল ৬ দিন পর

নিজস্ব প্রতিবেদক   

৬ মার্চ, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



উপসচিবের মৃত্যু সংবাদটি মিলল ৬ দিন পর

রাজধানীর বেইলি রোডের অফিসার্স কোয়ার্টারের বাসা থেকে শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের উপসচিব আব্দুল কাদের চৌধুরীর (৬০) অর্ধগলিত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। গত বুধবার সন্ধ্যায় অফিসার্স কোয়ার্টারের ১ নম্বর ভবনের তৃতীয় তলার তাঁর বাসা থেকেই দরজা ভেঙে লাশটি উদ্ধার করা হয়। পরে ময়নাতদন্তের জন্য গভীর রাতে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ মর্গে পাঠায় পুলিশ।

আব্দুল কাদের চৌধুরী একাই বাসায় ছিলেন। দীর্ঘদিন ধরে তিনি অসুস্থ ছিলেন বলে জানায় তাঁর স্বজনরা। পুলিশের ধারণা, পাঁচ-ছয় দিন আগে কাদের চৌধুরীর মৃত্যু হয়েছে।

মৃত উপসচিবের ফুফাতো ভাই কামাল হোসেন কবির বলেন, আব্দুল কাদের চৌধুরীর হৃদরোগের সমস্যা ছিল। এক বছর আগে বারডেম হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন। ১৫ দিন আগে গ্রামের বাড়ি ভোলার শশীভূষণ থেকে ঢাকায় আসেন। বছর ১৫ আগে মানিকগঞ্জের ডিসি ছিলেন কাদের চৌধুরী। ব্যক্তিগত জীবনে তিনি অবিবাহিত ছিলেন। চার ভাই ও তিন বোনের মধ্যে দ্বিতীয় ছিলেন তিনি। বেইলি রোডের ওই কোয়ার্টারে তিনি থাকতেন।

রমনা থানার উপপরিদর্শক (এসআই) মো. ইউনুস মোল্লা বলেন, সাত-আট দিন ধরে আব্দুল কাদের চৌধুরী অফিসে যাচ্ছিলেন না। সহকর্মীরাও যোগাযোগ করে তাঁকে পাননি। বুধবার তাঁর পাশের ফ্ল্যাটের লোকজন পচা গন্ধ পেয়ে পুলিশে খবর দেয়। পুলিশ সিআইডির ক্রাইম সিন ইউনিটকে নিয়ে দরজা ভেঙে ভেতরে প্রবেশ করে পচন ধরা লাশ দেখতে পায়।

এসআই ইউনুস বলেন, ‘জানতে পেরেছি, দীর্ঘদিন যাবৎ তিনি অসুস্থ ছিলেন। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, কয়েক দিন আগেই অসুস্থতাজনিত কারণে মারা গেছেন তিনি। ময়নাতদন্তের পর মৃত্যুর কারণ নিশ্চিত হওয়া যাবে।’

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা