kalerkantho

সোমবার । ১৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭ । ১  জুন ২০২০। ৮ শাওয়াল ১৪৪১

এমপির পিএসের নেতৃত্বে ৩ ভাইকে কুপিয়ে জখম

একজনের হাতের রগ কর্তন

কলাপাড়া (পটুয়াখালী) প্রতিনিধি    

২৯ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



পটুয়াখালীর কলাপাড়ায় মাছের ঘের দখলকে কেন্দ্র করে দুর্বৃত্তদের সশস্ত্র হামলায় নুর বাহাদুর নামের এক যুবকের বাঁ হাতের রগ কর্তন এবং বাঁ চোখে মারাত্মক যখম হয়েছে। এ ছাড়া তাঁর আরো দুই ভাইকে কুপিয়ে আহত করা হয়েছে। গত বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় উপজেলার ধুলাসার ইউনিয়নের কাউয়ার চরে স্থানীয় সংসদ সদস্য মো. মুহিব্বুর রহমানের পিএস তরিকুল ইসলামের নেতৃত্বে এ হামলার ঘটনা ঘটে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

হামলায় গুরুতর আহত নুর বাহাদুরসহ তিন ভাইকেই উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় পাঠানো হয়েছে। তাদের মধ্যে নূর বাহারদুরকে ঢাকার পঙ্গু হাসপাতালে এবং অন্য দুই ভাই জুয়েল রানা ও সোহেল রানাকে ঢাকায় একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

এ ঘটনায় গতকাল শুক্রবার আহতদের বাবা মো. মাহবুবুর রহমান বাদী হয়ে স্থানীয় তরিকুল ইসলামকে প্রধান আসামি করে ২০ জনের বিরুদ্ধে একটি মামলা করেছেন। পুলিশ মো. শাহিন মৃধা নামের এক যুবককে গ্রেপ্তার করেছে।

আহত সোহেল রানা বলেন, মাছের ঘেরটিতে তাঁরা দীর্ঘদিন ধরে মাছ চাষ করে আসছেন। মো. মহিব্বুর রহমান এমপি নির্বাচিত হওয়ার পরপরই মাছের ঘেরটি তিনি তাঁর সহযোগীদের মাধ্যমে দখলে নিয়ে যান। এরপর আইনি প্রক্রিয়ায় ঘেরের অধিকার ফিরে পেয়ে মাছের ঘেরে যাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে এমপির পিএস মো. তরিকুল ইসলামের নেতৃত্বে একদল সশস্ত্র সন্ত্রাসী তাঁদের ওপর হামলা চালায়।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় এ হামলার ঘটনার পর রাত পৌনে ১০টায় জুয়েল রানা এবং সোহেল রানাকে কলাপাড়া হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তবে কর্তব্যরত চিকিৎসক মো. মাহমুদুর রহমান আশঙ্কাজনক অবস্থায় নুর বাহাদুরকে উন্নত চিকিৎসার জন্য বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে রেফার করেন।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা