kalerkantho

মঙ্গলবার । ২৪ চৈত্র ১৪২৬। ৭ এপ্রিল ২০২০। ১২ শাবান ১৪৪১

মাদরাসায় ছাত্রীর লাশ

বিচার দাবিতে বিক্ষোভ

নবীনগর (ব্রাহ্মণবাড়িয়া) প্রতিনিধি   

২৭ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



নবীনগরের সলিমগঞ্জের জান্নাতুল ফেরদাউস মহিলা মাদরাসায় ষষ্ঠ শ্রেণির ছাত্রী আমেনার ঝুলন্ত লাশ উদ্ধারের ঘটনায় ফুঁসে উঠেছে এলাকাবাসী। স্থানীয়রা মনে করে, ওই ছাত্রীকে ধর্ষণের পর হত্যা করা হয়েছে। এ নৃশংসতার সঙ্গে মাদরাসার প্রধান শিক্ষক মাওলানা মোস্তফা জড়িত বলে স্বজনরা দাবি করেছে। এ ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের বিচারের দাবিতে গতকাল বুধবার বিকেলে মাদরাসাছাত্রী আমেনার এলাকা বাঞ্ছারামপুরের ছয়ফুল্লাকান্দিতে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ করেছে এলাকাবাসী। এ সময় বিক্ষোভকারীরা অভিযুক্তদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করে।

সলিমগঞ্জের আওয়ামী লীগ নেতা মাইনুদ্দিন আহমেদ বলেন, ‘ঘটনাটি রহস্যজনক। তবে এটি যে হত্যাকাণ্ড, তাতে আমাদের কোনো সন্দেহ নেই। এ ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত দাবি করছি।’

ওই ছাত্রীর মা সেলিনা খাতুন বলেন, ‘আমি শতভাগ নিশ্চিত আমার মেয়েকে মাদরাসার প্রধান শিক্ষক ধর্ষণ শেষে গলাটিপে হত্যা করেছেন। পরে লাশ ফাঁসিতে ঝুলিয়ে রেখে নাটক সাজিয়েছেন। আমি এদের সবার ফাঁসি চাই।’ এ ব্যাপারে নবীনগর থানার ওসি রণজিৎ রায় বলেন, ‘এটি ধর্ষণ, হত্যা নাকি আত্মহত্যা, তা ময়নাতদন্তের পরই বলা যাবে। তবে তদন্ত শুরু হয়েছে।’ স্থানীয় এমপি মোহাম্মদ এবাদুল করিম বুলবুল বলেন, ‘মূল রহস্য বের করে সব অপরাধীদের ধরতে পুলিশকে নির্দেশ দিয়েছি।’

গত সোমবার রাতে ষষ্ঠ শ্রেণির মাদরাসাছাত্রী আমেনার ঝুলন্ত লাশ মাদরাসার চতুর্থ তলার সিঁড়ি থেকে উদ্ধার করে পুলিশ।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা