kalerkantho

বুধবার । ২০ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭ । ৩ জুন ২০২০। ১০ শাওয়াল ১৪৪১

মন্ত্রিসভায় উঠছে হজ প্যাকেজ

বিমানভাড়া ১০ হাজার টাকা বাড়ানোর প্রস্তাব

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২৪ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



চলতি বছরের হজ প্যাকেজ মন্ত্রিসভার বৈঠকে উঠছে আজ সোমবার। এবারের প্রস্তাবিত প্যাকেজে বিমানভাড়া ধরা হয়েছে জনপ্রতি এক লাখ ৩৮ হাজার টাকা; যা গত বছরের চেয়ে ১০ হাজার টাকা বেশি। একই সঙ্গে আজকের বৈঠকে হজ ও ওমরাহ নীতি-২০২০ উঠানোর কথা রয়েছে। দায়িত্বশীল একাধিক সূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে।

সকাল ১০টায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে তাঁর কার্যালয়ে মন্ত্রিসভার সাপ্তাহিক বৈঠক অনুষ্ঠান নির্ধারিত রয়েছে। ব্যতিক্রম না হলে এই বৈঠকে চলতি বছরের হজ প্যাকেজ অনুমোদন পাচ্ছে। ধর্ম মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, প্রস্তাবিত হজ প্যাকেজে সবচেয়ে কম দামে যাওয়া যাবে হজ প্যাকেজ-৩ এ। এই প্যাকেজে টাকা ধরা হয়েছে তিন লাখ ১৫ হাজার টাকা। হজ প্যাকেজ-২ এ লাগবে তিন লাখ ৬০ হাজার টাকা এবং হজ প্যাকেজ-১ এ লাগবে চার লাখ ২৫ হাজার টাকা।

চাঁদ দেখা অনুযায়ী জুলাই মাসের শেষ দিকে হজ অনুষ্ঠানের তারিখ নির্ধারণ হবে। এবার গত বছরের চেয়ে ১০ হাজার টাকা বেশি দিয়ে বাংলাদেশিরা হজ করতে সৌদি আরব যেতে পারবেন। এই হিসাবে চলতি বছরে হজে যাবেন এক লাখ ৩৭ হাজার বাংলাদেশি। এর মধ্যে ১৭ হাজারের কিছু বেশি যাবেন সরকারি ব্যবস্থাপনায়। বাকি হজযাত্রীরা যাবেন বেসরকারি ব্যবস্থাপনায়।

হজ এজেন্সিজ অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের (হাব) পক্ষ থেকে বরাবরই দাবি করা হচ্ছে, সৌদি আরবে ওমরাহ করতে যেতে একজন হজযাত্রীকে বিমানভাড়ার জন্য ৫০ থেকে ৫৫ হাজার টাকা খরচ করলেই হয়। সেখানে হজের সময় নিশ্চিত যাত্রী পেয়েও একজন হজগমনেচ্ছুকে তিনগুণ খরচ গুনতে হবে। এই সংগঠনটির পক্ষ থেকে প্রতিবারই এ বিষয়টি সরকারের নজরে আনার চেষ্টা করা হয়। গতবার এসব দাবির পরিপ্রেক্ষিতে জনপ্রতি বিমানভাড়া ১০ হাজার টাকা কমানো হয়েছিল। আজকের মন্ত্রিসভা বৈঠকে প্রস্তাবিত ভাড়াই চূড়ান্ত হবে নাকি বিমানভাড়া কিছুটা কমানো হবে, তা জানা যাবে বৈঠক শেষে মন্ত্রিপরিষদসচিবের সংবাদ সম্মেলন থেকে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা