kalerkantho

বুধবার । ২০ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭ । ৩ জুন ২০২০। ১০ শাওয়াল ১৪৪১

সিলেটে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত ২

সিলেট অফিস   

২৩ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



সিলেটে পুলিশ ও র‌্যাবের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ দুই ব্যক্তি নিহত হয়েছেন। শুক্রবার দিবাগত রাতে বিশ্বনাথ ও গোলাপগঞ্জ উপজেলায় এ ঘটনা ঘটে। বিশ্বনাথে নিহত ব্যক্তি ডাকাত সর্দার বলে দাবি করেছে পুলিশ। আর গোলাপগঞ্জে নিহত ব্যক্তি চিহ্নিত সন্ত্রাসী ও একাধিক হত্যা মামলার আসামি বলে জানিয়েছে র‌্যাব।

বিশ্বনাথ উপজেলায় পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত ব্যক্তির নাম ফটিক ওরফে লিটন। তিনি উপজেলার রামপাশা ইউনিয়নের নধার গ্রামের বাসিন্দা। আর র‌্যাবের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত ব্যক্তির নাম আলী হোসেন। তিনি গোলাপগঞ্জ উপজেলার শরীফপুর ইউনিয়নের কদুপুর গ্রামের আত্তর আলীর ছেলে।

সিলেট জেলা পুলিশের পক্ষ থেকে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. লুৎফুর রহমান স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, শুক্রবার রাত ৩টার দিকে সিলেট-বিশ্বনাথ-জগন্নাথপুর বাইপাস সড়কের মরমপুর সুরিরখালের মধ্যবর্তী স্থানে এক দল ডাকাত গাছ কেটে রাস্তার ওপর ফেলে ডাকাতি করছে খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে যায়। এ সময় পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে ডাকাতরা গুলি চালায়। আত্মরক্ষার্থে পুলিশ পাল্টা গুলি চালালে এক ডাকাত সদস্য নিহত হন এবং অন্যরা পালিয়ে যায়।

বিশ্বনাথ প্রতিনিধি জানান, নিহত ডাকাতের পরিচয় গতকাল শনিবার বিকেলে পুলিশ নিশ্চিত হয়। নিহতের স্ত্রী লাশ শনাক্ত করেন। লাশ ময়নাতদন্ত শেষে পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

একই দিন মধ্যরাতে গোলাপগঞ্জের শরীফগঞ্জ ইউনিয়নের কদুপুর গ্রামে একাধিক হত্যা মামলার আসামি আলী হোসেনকে গ্রেপ্তার করতে অভিযান চালায় র‌্যাব-৯-এর একটি দল। এ সময় র‌্যাব সদস্যদের লক্ষ্য করে সন্ত্রাসীরা গুলি চালালে র‌্যাব পাল্টা গুলি চালায়। একপর্যায়ে সন্ত্রাসীরা পালিয়ে গেলে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় আলী হোসেনকে র‌্যাব উদ্ধার করে ওসমানী হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসকরা তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন।

 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা