kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ১৩ কার্তিক ১৪২৭। ২৯ অক্টোবর ২০২০। ১১ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

ঢাকার দুই সিটি

শপথের তারিখ হয়নি মেয়র ও কাউন্সিলরদের

মোশতাক আহমদ   

১৫ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ঢাকার দুই সিটি করপোরেশনের নবনির্বাচিত মেয়র ও কাউন্সিলরদের শপথগ্রহণের তারিখ এখনো নির্ধারিত হয়নি। নিয়ম অনুযায়ী মেয়রদের শপথ পাঠ করাবেন প্রধানমন্ত্রী আর কাউন্সিলরদের স্থানীয় সরকার মন্ত্রী। গত ৪ ফেব্রুয়ারি নবনির্বাচিত মেয়র ও কাউন্সিলরদের বিষয়ে সরকারি গেজেট প্রকাশিত হয়েছে।

গেজেট প্রকাশের পর এখনো মেয়র-কাউন্সিলরদের শপথের তারিখ নির্ধারণ করতে পারেনি স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়।

জানতে চাইলে স্থানীয় সরকার মন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘আমরা শপথের বিষয়ে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর সময় চেয়ে পত্র পাঠিয়েছি। এখনো তারিখ নির্ধারিত হয়নি। তারিখ পেলেই সময় নির্ধারণ করে শপথ সম্পন্ন করা হবে।’ তিনি বলেন, ‘আইন অনুযায়ী ৩০ দিনের মধ্যে শপথ অনুষ্ঠানের যে বাধ্যবাধকতা আছে, তার মধ্যে শপথ সম্পন্ন করার বিষয়ে আমরা আশাবাদী।’

মন্ত্রণালয় সূত্র জানায়, গত ১ ফেব্রুয়ারি ঢাকার দুই সিটি করপোরেশন নির্বাচন হয়।

এদিকে শপথ নেওয়ার পরপরই ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) মেয়র শেখ ফজলে নূর তাপস ও ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) মেয়র আতিকুল ইসলাম দায়িত্ব নিতে পারছেন না। তাঁদের অপেক্ষা করতে হবে আরো তিন মাস।

মন্ত্রণালয় জানায়, আইন অনুসারে করপোরেশনের মেয়াদ শেষ হওয়ার আগের ছয় মাসের মধ্যে নির্বাচন করার বাধ্যবাধকতা রয়েছে।

সুশাসনের জন্য নাগরিকের (সুজন) সাধারণ সম্পাদক ড. বদিউল আলম মজুমদার বলেন, ‘নগরবাসীর প্রত্যাশা ছিল যিনি নির্বাচিত হবেন, তিনি তাঁর দেওয়া ওয়াদাগুলো দ্রুত বাস্তবায়নের উদ্যোগ নেবেন। কিন্তু এখন দেখা যাচ্ছে, ১৪ বা ১৭ মের আগে তাঁরা দায়িত্ব নিতে পারছেন না। দুই মেয়র দায়িত্ব না নিলে কাউন্সিলররাও দায়িত্ব নিতে পারছেন না।’

নগরবিদ স্থপতি মোবাশ্বের হোসেন বলেন, ‘স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয় কিংবা নির্বাচন কমিশনের কর্তাব্যক্তিরাও নবনির্বাচিত মেয়র ও কাউন্সিলরদের দায়িত্বগ্রহণ নিয়ে সমস্যাটি জানতেন। কিন্তু তার পরও তাঁরা আগেভাগে নির্বাচনটি করে একটি স্থবির পরিস্থিতির সৃষ্টি করেছেন।’

মন্তব্য