kalerkantho

মঙ্গলবার । ৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৭। ২৪ নভেম্বর ২০২০। ৮ রবিউস সানি ১৪৪২

আদালতে বাবার স্বীকারোক্তি

স্ত্রীকে ‘শিক্ষা’ দিতে সন্তানকে হত্যার চেষ্টা

আঞ্চলিক প্রতিনিধি, গাজীপুর   

২৮ জানুয়ারি, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



গাজীপুরের শ্রীপুরে নিজের তিন বছর বয়সী শিশুছেলেকে গলা কেটে হত্যার চেষ্টার ঘটনায় গ্রেপ্তার হওয়া রাজু মিয়া নিজেকে মাদকাসক্ত বলে দাবি করেছেন। আর স্ত্রীকে ‘উচিত শিক্ষা’ দিতেই নিজের শিশুছেলের গলায় ছুরি চালিয়েছেন বলে স্বীকার করে আদালতে জবানবন্দি দিয়েছেন রাজু।

গতকাল সোমবার বিকেলে গাজীপুরের সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট ইকবাল হোসেনের আদালতে রাজু ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেন।

এদিকে তিন মাস বয়সী শিশুটি এখনো আশঙ্কামুক্ত নয় বলে জানিয়েছেন শ্রীপুর থানার ওসি (তদন্ত) আকতার হোসেন। চিকিৎসকদের বরাত দিয়ে ওসি (তদন্ত) আরো জানিয়েছেন, শ্বাসনালির কিছু অংশ কেটে যাওয়ায় শিশুটির জীবনের সংশয় রয়েছে।

গলা কেটে হত্যার চেষ্টার ঘটনায় শিশুর মা কামরুন্নাহার বাদী হয়ে গত রবিবার রাতেই শ্রীপুর থানায় মামলা করেছেন।

ওসি (তদন্ত) আকতার হোসেন জানান, স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দিতে রাজু মিয়া জানিয়েছেন, তাঁর নেশার কারণে দীর্ঘদিন ধরেই সংসারে অশান্তি। তাঁর স্ত্রীকেও চাকরি ছেড়ে বাড়ি ফিরে যেতে বলেছিলেন। কিন্তু তাঁর স্ত্রী রাজি হননি। এতে প্রায়ই ঝগড়া হতো তাঁদের মধ্যে। পরে স্ত্রীকে ‘উচিত শিক্ষা’ দেওয়ার জন্য নিজের শিশুসন্তানকে হত্যার পরিকল্পনা করেন তিনি। পরিকল্পনা মতো শিশুটিকে বিছানায় ফেলে গলায় ছুরি চালানোর সময় টের পান তাঁর শাশুড়ি। পরে তিনি পালানোর সময় গ্রামবাসী তাঁকে ধরে পুলিশের হাতে তুলে দেয়।

মন্তব্য