kalerkantho

মঙ্গলবার । ৫ ফাল্গুন ১৪২৬ । ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০২০। ২৩ জমাদিউস সানি ১৪৪১

তিন জেলায় ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত ৩

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

২৫ জানুয়ারি, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



নাটোরের গুরুদাসপুরে পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ এক হত্যা মামলার আসামি নিহত হয়েছেন। মাগুরা সদর উপজেলায় ডাকাতদলের দুই পক্ষের ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত হয়েছেন আরেকজন। পুলিশের দাবি, তিনি আন্তজেলা ডাকাত সর্দার ছিলেন। অন্যদিকে কক্সবাজারের টেকনাফে বিজিবির সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ এক অচেনা ব্যক্তি নিহত হয়েছেন।   বিস্তারিত প্রতিনিধিদের পাঠানো খবরে—

গুরুদাসপুর (নাটোর) : গুরুদাসপুরে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত আবু হানিফ শেখ (৪৬) উপজেলার কালাকান্দর গ্রামের রুহুল শেখের ছেলে। তিনি গৃহবধূ মনোয়ারা বেগম হত্যা মামলার আসামি। এ ছাড়া তাঁর বিরুদ্ধে হত্যা, ডাকাতি ও অস্ত্র আইনে একাধিক মামলা রয়েছে।

গুরুদাসপুর থানার ওসি মোজহারুল ইসলাম জানান, সিংড়া সার্কেলের এএসপি মো. জামিল আকতারের নেতৃত্বে গুরুদাসপুর থানা পুুলিশের একটি দল গত বৃহস্পতিবার রাত ১টার দিকে রাজধানীর মেরুল বাড্ডা এলাকা থেকে আবু হানিফ শেখকে গ্রেপ্তার করে। পরে হানিফের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, গতকাল ভোরে তাঁকে সঙ্গে নিয়ে মনোয়ারা হত্যা মামলার অন্য আসামিদের গ্রেপ্তার করতে অভিযান চালায় পুলিশ। এ সময় পারগুরুদাসপুর-কালাকান্দর সংযোগ সড়কের পাশে কলাবাগানে পলাতক আসামিরা পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ে। পুলিশও পাল্টা গুলি চালায়। এতে হানিফ গুলিবিদ্ধ হন।

মাগুরা : নিহত মিন্টু গাজী (৪২) নড়াইলের লোহাগড়া উপজেলার ইতনা গ্রামের ফায়েক গাজীর ছেলে।

মাগুরা সদর থানার ওসি সাইফুল ইসলাম জানান, বৃহস্পতিবার রাত ১টার দিকে বরই গ্রামে দুটি ডাকাতদলের মধ্যে ‘বন্দুকযুদ্ধের’ খবর পেয়ে সদর পুলিশ ঘটনাস্থলে যায়। অন্যরা পালিয়ে গেলেও ঘটনাস্থলে মাথায় গুলিবিদ্ধ অবস্থায় মিন্টু গাজীকে পড়ে থাকতে দেখে পুলিশ।

টেকনাফ : নিহত ব্যক্তির পরিচয় জানাতে পারেনি বিজিবি। তবে ধারণা করা হচ্ছে তিনি রোহিঙ্গা।

টেকনাফ-২ বিজিবি অধিনায়ক লে. কর্নেল মো. ফয়সাল হাসান খান জানান, বৃহস্পতিবার জাদিমুরা নাফ নদের তীরে বিজিবির একটি দল টহল দিচ্ছিল। এ সময় কয়েকজন ব্যক্তিকে কাঁধে বস্তা বহন করতে দেখে তাদের থামার সংকেত দেওয়া হয়। কিন্তু তারা সংকেত অমান্য করে দ্রুত এগিয়ে গেলে বিজিবি সদস্যরা তাদের পিছু নেয়। এ সময় তারা বিজিবির ওপর গুলি চালালে দুই বিজিবি সদস্য আহত হন। বিজিবিও পাল্টা গুলি চালালে পাচারকারীরা পালিয়ে যায়। পরে ঘটনাস্থল তল্লাশি করে একজনকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় উদ্ধার করা হয়।

[প্রতিবেদনটি তৈরিতে তথ্য দিয়ে সহায়তা করেছেন গুরুদাসপুর (নাটোর), মাগুরা ও টেকনাফ (কক্সবাজার) প্রতিনিধি]

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা