kalerkantho

মঙ্গলবার । ৫ ফাল্গুন ১৪২৬ । ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০২০। ২৩ জমাদিউস সানি ১৪৪১

ফের বেড়েছে শীতের তীব্রতা শৈত্যপ্রবাহের সতর্কতা

সিলেট অঞ্চলে বৃষ্টি হতে পারে আজ

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

২১ জানুয়ারি, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



ফের বেড়েছে শীতের তীব্রতা শৈত্যপ্রবাহের সতর্কতা

দেশের উত্তরাঞ্চলের জনপদে আবারও শীতের তীব্রতা বেড়েছে। মাঝে দুই দিন পরিস্থিতির কিছুটা উন্নতি হলেও গতকাল সোমবার দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে পঞ্চগড়ের তেঁতুলিয়ায়, ১০ দশমিক ৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস। আজ মঙ্গলবার শুরু হতে পারে মাঝারি বা মৃদু মাত্রার শৈত্যপ্রবাহ।

এদিকে রাজধানী ঢাকাতেও এদিন সকাল ও সন্ধ্যায় তুলনামূলক বেশি শীত অনুভূত হয়েছে। এদিন রাজশাহীর বদলগাছীতে বৃষ্টি হয়েছে। আজ মঙ্গলবার সিলেট বিভাগের দু-এক জায়গায় বৃষ্টি হতে পারে।

আবহাওয়াবিদ হাফিজুর রহমানের বরাত দিয়ে বার্তা সংস্থা বাসস জানায়, আজ থেকে দেশের বিভিন্ন এলাকায় তাপমাত্রা কমে শীতের তীব্রতা বাড়তে পারে। আগামী দুই-তিন দিন এই অবস্থা থাকবে। ওই সময় দেশের কোথাও কোথাও তাপমাত্রা ১০ ডিগ্রি সেলসিয়াসের নিচে নামতে পারে।

সিলেট বিভাগের দু-এক জায়গায় আজ হালকা বা গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। দেশের অন্যত্র অস্থায়ীভাবে আংশিক মেঘলা আকাশসহ আবহাওয়া প্রধানত শুষ্ক থাকতে পারে। গতকাল সকাল ৯টা থেকে পরবর্তী ২৪ ঘণ্টার আবহাওয়ার পূর্বাভাসে আরো বলা হয়, মধ্যরাত থেকে সকাল পর্যন্ত দেশের কোথাও কোথাও হালকা থেকে মাঝারি মাত্রার কুয়াশা পড়তে পারে। এ ছাড়া সারা দেশে রাতের তাপমাত্রা ২ থেকে ৩ ডিগ্রি ও দিনের তাপমাত্রা সামান্য কমতে পারে। গতকাল ঢাকায় সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ১৬ দশমিক ৫ ও সর্বোচ্চ ২৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস রেকর্ড করা হয়। রাজশাহীর বদলগাছীতে চার মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়।

পঞ্চগড় প্রতিনিধি জানান, গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টির পর পঞ্চগড়ে আবারও বেড়েছে শীতের তীব্রতা। কমে এসেছে দিনের তাপমাত্রাও। গতকাল সারাদিন সূর্যের দেখা মেলেনি। তেঁতুলিয়ায় দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ১০ দশমিক ৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস রেকর্ড করা হয়। বিকেল ৩টায় জেলায় সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ১৪ দশমিক ৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস। সর্বনিম্ন ও সর্বোচ্চ তাপমাত্রার ব্যবধান কমে আসায় তীব্র শীত অনুভূত হচ্ছে। হিমশীতল বাতাসের সঙ্গে হালকা কুয়াশায় ঢেকে থাকছে চারপাশ।

তেঁতুলিয়া আবহাওয়া পর্যবেক্ষণাগারের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা রহিদুল ইসলাম জানান, আজ তাপমাত্রা আরো কমে আসার পাশাপাশি মাঝারি মাত্রার শৈত্যপ্রবাহ শুরু হতে পারে।

নীলফামারী প্রতিনিধি জানান, গত শুক্র ও শনিবার জেলায় সূর্যের তাপে শীতের তীব্রতা কমে এলেও রবিবারই পরিস্থিতির অবনতি শুরু হয়। আর গতকাল সকাল থেকে হিমেল বাতাসে জেলায় জেঁকে বসেছে শীত। সৈয়দপুর বিমানবন্দর আবহাওয়া কার্যালয় সূত্র জানায়, গত রবিবার জেলায় সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ১৩ দশমিক ৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস। গতকাল তা ১১ দশমিক ৪ ডিগ্রিতে নেমে আসে। আগামী দুই দিন তাপমাত্রা আরো কমতে পারে এবং ২৬ তারিখের পর মৃদু ও মাঝারি শৈত্যপ্রবাহ বয়ে যেতে পারে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা