kalerkantho

শুক্রবার । ১৪ কার্তিক ১৪২৭। ৩০ অক্টোবর ২০২০। ১২ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

দক্ষিণের ১৩ ও ৭২ নম্বর ওয়ার্ড

চলছে প্রচারণা

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৯ জানুয়ারি, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



রাজধানীর পল্টন, নয়াপল্টন, বায়তুল মোকাররমের এক অংশ, দৈনিক বাংলার কিছু অংশ নিয়ে গঠিত ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের ১৩ নম্বর ওয়ার্ড। এই ওয়ার্ডে এবার বিএনপি সমর্থিত প্রার্থী এস এম আব্বাস কাউন্সিলর পদে নির্বাচন করছেন।

গতকাল শনিবার দুপুর ২টার দিকে বায়তুল মোকাররম এলাকায় দেখা যায়, তাঁর এক কর্মী অনেক লিফলেট নিয়ে ঘুরছেন। তাঁকে অনেকটা সংকোচে লিফলেট বিলি করতে দেখা যায়। তাঁর কাছে লিফলেট চাইলে তিনি বিএনপি মনোনীত মেয়র পদপ্রার্থী ইশরাক হোসেন, বিএনপি সমর্থিত সংরক্ষিত ১৩, ১৯ ও ২০ নম্বর ওয়ার্ডের সরক্ষিত আসন-৫-এর মহিলা কাউন্সিলর পদপ্রার্থী মোসা. বিলকিস আক্তার ও এস এম আব্বাসের লিফলেট দেন। ওই কর্মী জানান, তিনি কাউন্সিলরের কর্মী। প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘তিনজনই বিএনপির সমর্থিত প্রার্থী বলে একসঙ্গে তিনজনের লিফলেট দিচ্ছি।’ লিফলেট দিতে এত সংকোচ কেন প্রশ্ন করা হলে তিনি কোনো উত্তর না দিয়ে সামনের দিকে চলে যান।

১৩ নম্বর ওয়ার্ড থেকে নজরুল ইসলাম জুয়েল (লাটিম), এস এম আব্বাস (ঠেলাগাড়ি) ও মো. এনামুল হক (ঘুড়ি) মার্কা নিয়ে কাউন্সিলর পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এর মধ্যে আওয়ামী লীগ সমর্থিত প্রার্থী হচ্ছেন এনামুল হক।

বিকেলে মাণ্ডা এলাকার ৭২ নম্বর ওয়ার্ডটি ঘুরে দেখা গেল, প্রার্থীরা জোরেশোরেই প্রচার চালাচ্ছেন। পুরো এলাকা ভরে গেছে পোস্টারে পোস্টারে। এ ওয়ার্ডে নির্বাচন করছেন আওয়ামী লীগের সমর্থিত প্রার্থী শফিকুল আলম শামীম (ব্যাডমিন্টন র‌্যাকেট),  বিএনপি সমর্থিত প্রার্থী মো. জিয়াউল হক রতন (ঘুড়ি) ও মো. শরীফ হোসেন (ঠেলাগাড়ি)। ৭২ নম্বর ওয়ার্ডটি বছর দুয়েক আগে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের অন্তর্ভুক্ত হয়। গত বছর ফেব্রুয়ারি মাসে সেখানে কাউন্সিলর পদে নির্বাচন হয়। মাণ্ডা খালপাড় থেকে সোনা মিয়া রোডের পশ্চিম পাশ, সোনা মিয়া রোডের পূর্ব পাশ থেকে গনি মিস্ত্রি রাস্তার পশ্চিম পাশ, গনি মিস্ত্রি রাস্তার পূর্ব পাশ থেকে গনি মিস্ত্রি রাস্তার পশ্চিম পাশ, গনি মিস্ত্রি রাস্তার পূর্ব পাশ থেকে জেলেপাড়া রাস্তার পশ্চিম পাশ, জেলেপাড়া রাস্তার পূর্ব পাশ থেকে গ্রীন মডেল টাউন পর্যন্ত ওয়ার্ডটি বিস্তৃত।

মন্তব্য