kalerkantho

বৃহস্পতিবার  । ২৬ চৈত্র ১৪২৬। ৯ এপ্রিল ২০২০। ১৪ শাবান ১৪৪১

আইইউবিতে রুবানা হক

কাউকে অনুসরণের প্রয়োজন নেই

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৯ জানুয়ারি, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বাংলাদেশ গার্মেন্ট ম্যানুফ্যাকচারস অ্যান্ড এক্সপোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশনের (বিজিএমইএ) প্রেসিডেন্ট ড. রুবানা হক শিক্ষার্থীদের উদ্দেশে বলেছেন, ‘কাউকে অনুসরণ বা অনুকরণ করার প্রয়োজন নেই। কারণ আমরা কেউ অনুকরণীয় নই। বরং তোমরাই জাতির ভবিষ্যৎ। তোমাদের কাছ থেকেই আমরা প্রতিনিয়ত শিখছি।’

গতকাল শনিবার রাজধানীর বসুন্ধরা আবাসিক এলাকায় ইনডিপেনডেন্ট ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশের (আইইউবি) স্প্রিং সেমিস্টারের ওরিয়েন্টেশনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। এই সেমিস্টারে বিশ্ববিদ্যালয়টিতে প্রায় এক হাজার ৪০০ নতুন শিক্ষার্থী ভর্তি হয়েছেন।

রুবানা হক শিক্ষার্থীদের বলেন, ‘আকাশ ছুঁয়ে যাও। আকাশ ছোঁয়া প্রয়োজন। কারণ তোমাদের মা-বাবা কষ্ট করে তোমাদের বিশ্ববিদ্যালয়ে পাঠিয়েছেন। আর মা-বাবার বিশ্বাস কখনো ভঙ্গ করবে না। কেউ ভালো করলে তাকে ঈর্ষা করবে না। সমালোচনাটাকে গঠনমূলক করো। আমাদের জীবনে বিরুদ্ধাচরণের কোনো জায়গা নেই।’

বিজিএমইএর প্রথম নারী প্রেসিডেন্ট বলেন, ‘আমরা সব সময় তেলা মাথায় তেল দিই। একেকজন একেকটি মহা আসনে বসে মনে করেন, সব জানি। আমরা যাঁরা মুরব্বি তাঁরা সব সময় তোমাদের সঠিক কথা বলি না। রক্ত দিলে সম্পর্ক হয় না, আত্মা দিয়ে হয়।’

তিনি বলেন, ‘অনেক বেশি বই পড়তে হবে। প্রতিদিন একটি করে কবিতা পড়ো, একটি করে গান শোনো। যদি কখনো জীবনে কিছু ভেঙে যায়, তা জোড়া লাগিও। কারণ প্রতিটি জিনিস মূল্যবান। সম্পর্ক, অভিজ্ঞতা ও শিক্ষাকে দাম দিও। জীবনে যত পড়বে, ততই এগিয়ে যাবে।’

রুবানা হক বলেন, ‘সবাইকে চলে যেতে হবে। তাই মনে রাখতে হবে, প্রতিটি মুহূর্তই মূল্যবান। বিনয়ের সঙ্গে জীবন যাপন করো। মানুষের কল্যাণ করো। তাহলে জীবনে অনেক বড় হবে।’

আইইউবির ভারপ্রাপ্ত উপাচার্য অধ্যাপক মিলান পাগন শিক্ষার্থীদের কাঙ্ক্ষিত লক্ষ্যের যোগ্য করে গড়ে তোলার পরামর্শ দেন। তিনি বলেন, নিজেকে পেশাগত জীবনে শ্রেষ্ঠত্ব অর্জন করতে হবে। দায়িত্ববান ও ভালো মানুষ হিসেবে গড়ে তুলতে হবে।

আইইউবির বোর্ড অব ট্রাস্টিজের সভাপতি এ মতিন চৌধুরী শিক্ষার্থীদের নীতি-নৈতিকতার ওপর গুরুত্বারোপ করেন। অনুষ্ঠানে বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার মো. আনোয়ারুল ইসলামসহ বিভিন্ন অনুষদের শিক্ষকরা বক্তব্য দেন।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা