kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ৬ কার্তিক ১৪২৭। ২২ অক্টোবর ২০২০। ৪ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

ধর্ষণের পর পতিতালয়ে বিক্রির পরিকল্পনা!

সিলেট অফিস ও মহাদেবপুর (নওগাঁ) প্রতিনিধি   

১৯ জানুয়ারি, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ধর্ষণের পর পতিতালয়ে বিক্রির পরিকল্পনা!

নীলফামারীর এক কিশোরীকে সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুরে এনে ধর্ষণ করা হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় জোবায়ের আহমদ নামের এক ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব। গত শুক্রবার ভোরে জগন্নাথপুর উপজেলার মহিষকোনা গ্রাম থেকে তাঁকে গ্রেপ্তার করা হয়। র‌্যাবের ভাষ্য, জোবায়ের ওই কিশোরীকে পতিতালয়ে বিক্রির পরিকল্পনা এঁটেছিলেন।

গতকাল র‌্যাব-৯ এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানায়, জোবায়ের মহিষকোনা গ্রামের মৃত মছলন্দর আলীর ছেলে। এ মাইক্রোবাসচালক ব্যক্তিগত জীবনে বিবাহিত। তিনি প্রায়ই গাড়ি নিয়ে নীলফামারী যেতেন। বছরখানেক আগে নীলফামারী যাওয়ার পথে গাড়িতে ওই কিশোরী ও তার ফুফুর সঙ্গে পরিচয় হয়। সেই পরিচয়ের সূত্র ধরে কিশোরীর সঙ্গে মোবাইল ফোনে তাঁর যোগাযোগ হয়। গত ৯ জানুয়ারি ফুসলিয়ে ওই কিশোরীকে নীলফামারী থেকে সিলেট নিয়ে আসেন জোবায়ের। এরপর একাধিকবার ধর্ষণ করেন তিনি। এরই মধ্যে গত ১৪ জানুয়ারি ওই কিশোরীর বাবা নীলফামারী থানায় অপহরণ মামলা করেন। পরে র‌্যাব গোপন সূত্রের খবরে ওই কিশোরীকে উদ্ধার এবং জোবায়েরকে আটক করে। গ্রেপ্তার জোবায়ের ও উদ্ধার হওয়া কিশোরীকে শুক্রবার রাতেই নীলফামারী থানা পুলিশের কাছে পাঠানো হয়েছে।

র?্যাব-৯-এর অপারেশন অফিসার এএসপি মো. আনোয়ার হোসেন শামীম জানান, গ্রেপ্তারের পর প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে আসামি জোবায়ের অপহরণ ও ধর্ষণের কথা স্বীকার করেছেন। জোবায়ের জানিয়েছেন, কিছুদিন ধর্ষণ করার পর ওই কিশোরীকে পতিতালয়ে বিক্রি করার পরিকল্পনা ছিল।

মহাদেবপুরে ছাত্রীকে ধর্ষণচেষ্টা : নওগাঁর মহাদেবপুরে ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠীর এক কিশোরীকে ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগে খোমেজ উদ্দিন (৫৫) নামের এক দোকানিকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। ভুক্তভোগী স্থানীয় একটি স্কুলের ষষ্ঠ শ্রেণির ছাত্রী।

অভিযোগ অনুযায়ী, গত বৃহস্পতিবার সকালে প্রাইভেট পড়তে যাওয়ার সময় এনায়েতপুর মোড়ে খোমেজের দোকানে বসে ওই ছাত্রী। এ সময় তাকে ধর্ষণচেষ্টা করা হয়। ঘটনার সময় ওই এলাকায় কেউ ছিল না।

এ ঘটনায় গতকাল সকালে নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে মামলা করেন ভুক্তভোগীর মা। পরে দুপুর ১২টার দিকে এনায়েতপুর মোড় থেকে খোমেজকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা